আপডেট ১৮ min আগে ঢাকা, ১৮ই অক্টোবর, ২০১৭ ইং, ৩রা কার্তিক, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ২৬শে মুহাররম, ১৪৩৯ হিজরী

Breaking News
{"effect":"fade","fontstyle":"Bold","autoplay":"true","timer":4000}

প্রচ্ছদ খেলা স্লাইড

Share Button

৮ম আইকন মোস্তাফিজঃসিলেট খেলবে সুরমা সিক্সার্স নামে

| ২০:১১, জুলাই ২৪, ২০১৭

ক্রিড়া প্রতিবেদক । ২৪ জুলাই ঃবিপিএল এবার হবে আট দলের। নতুন নামে ফিরে আসছে সিলেট। সুরমা সিক্সার্স নামের এই দল ভেন্যু হিসেবে সিলেটকে চেয়েছিল। সিলেটকে ভেন্যু করা হবে কি না, তা এখনো চূড়ান্ত হয়নি। সিলেটের নাম এই নিয়ে তৃতীয়বারের মতো পরিবর্তন হলো। প্রথম দুই আসরে মাঠে গড়িয়েছিল সিলেট রয়েলস নামে। এরপর দলটির মালিকা পরিবর্তন হয়ে সিলেট সুপার স্টার্স নামে খেলে।

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার ক্রিকেট লীগের এবারের আসর ৪ঠা নভেম্বর থেকে মাঠে গড়ানোর কথা ছিল। কিন্তু দর্শকদের অপেক্ষা কমলো আরো দুইদিন। নতুন নির্ধারিত সময়ে ২রা নভেম্বর থেকে মাঠে গড়াবে বিপিএলের ৫ম আসর। এবার আট দল নিয়ে জমবে চার-ছক্কার লড়াই। যে কারণে আগেই গুঞ্জন ছিল বাড়বে আইকন ক্রিকেটারের সংখ্যা। এতদিন মুখে মুখে ৮ম আইকন হিসেবে মোস্তাফিজুর রহমানের নাম শোনা গেলেও গতকাল অনুষ্ঠাকিভাবে ঘোষণা করা হলো। ৫ম আসরে আইকন ক্রিকেটার হিসেবেই মাঠে থাকবেন তিনি। গতকাল একমি ল্যাবরেটরিজের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে ৫ম আসরকে ঘিরে বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল তুলে ধরেন নানা পরিবর্তন ও সংযোজনের বিষয়। গভর্নিং কাউন্সিলের সদস্য সচিব ইসমাইল হায়দার মল্লিক বলেন, ‘আগের আসরগুলোতে ৭টি দল খেলায় আইকন খেলোয়াড় ছিলেন সাতজন। এবার দল বাড়ায় আইকন খেলোয়াড়ও একজন বেড়েছে। নতুন আইকন ক্রিকেটার হয়েছেন মোস্তাফিজুর রহমান।’

 

 

মূলত জাতীয় দলের খেলোয়াড়দের পারফরম্যান্স বিচার করেই আইকন ক্রিকেটার ঠিক করা হয়। মোস্তাফিজ গত আসরেই আইকন হতে পারতেন। কিন্তু চোটের কারণে বিপিএলের শেষ আসরে যে খেলাই হয়নি বাঁহাতি এই পেসারের। এবার প্রথম টি-টোয়েন্টি লীগটিতে খেলবেন আইকন হয়েই। তবে এখনো দল ঠিক হয়নি তার। আইকনরা নিজ নিজ দল বেছে নিতে পারবেন। লটারির মাধ্যমে তাদের পাওয়ার সুযোগ থাকছে না। অনেকে এরই মধ্যে ব্যক্তিগত আলোচনায় পুরনো দলে থেকে গেছেন বা নতুন দল বেছে নিয়েছেন। দু-একজনের কথাবার্তা এখনো চলছে। আগামী আসরের আইকন ক্রিকেটারদের মধ্যে মাশরাফি বিন মুর্তজা দল নিশ্চিত করেছেন, খেলবেন রংপুর রাইডার্সে। সাকিব আল হাসানকে ঢাকা ডায়নামাইটস নিশ্চিত করে ফেলেছে বলে জানা গেছে। তামিম ইকবাল খেলবেন গতবারের দল চিটাগং ছেড়ে মাশরাফির কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সে। মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ খুলনা টাইটানসেই খেলবেন।

 

 

দুইদিন এগিয়ে এলো ৫ম আসর

গেল বছর বিপিএল সময় মতো মাঠে গড়ায়নি। উদ্বোধনী ম্যাচের দিন থেকে টানা দুইদিন বৃষ্টির কারণে তা পিছিয়ে  দেয়া হয়েছিল। এবার অবশ্য আগে থেকেই পেছানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। ২রা নভেম্বর থেকে শুরু হবে বিপিএলের পঞ্চম আসর। নতুন সূচির কথা জানিয়েছেন বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের চেয়ারম্যান আফজালুর রহমান সিনহা। ৩১শে অক্টোবর হবে টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। সময় পরিবর্তনের কারণ হিসেবে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়েছে, বিগ ব্যাশ ও দক্ষিণ আফ্রিকার গ্লোবাল টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টের জন্যই এই তারিখ পরিবর্তন করা হচ্ছে। এবারের খেলোয়াড় ড্রাফট সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝি সময়ে আয়োজন হবে। ড্রাফটে প্রতিটি দলকে কমপক্ষে ১৩ জন স্থানীয় খেলোয়াড়কে নিতে হবে। তালিকায় থাকা বিদেশিদের মধ্যে কমপক্ষে দুজনকে নিতে হবে। এবার অবশ্য প্রতি দল শেষ আসর থেকে  চারজন করে ক্রিকেটার ধরে রাখতে পারবে।

 

 

আপত্তির পরও একাদশে পাঁচ বিদেশি

বিপিএলের চতুর্থ আসর পর্যন্ত প্রতিটি দলে একাদশে সর্বোচ্চ চারজন বিদেশি খেলতে পারতেন। স্থানীয় খেলোয়াড়দের আপত্তির পরও একজন বিদেশি বাড়িয়ে সেটি করা হয়েছে পাঁচজন। জনা যায়, আট ফ্র্যাঞ্চাইজির পাঁচটি বিদেশি খেলোয়াড় বাড়ানোর লিখিত অনুরোধ করেছিল বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল ও বিসিবির কাছে। এ বিষয়ে ইসমাইল মল্লিক বলেন, ‘একাদশে সর্বোচ্চ পাঁচজন বিদেশি ক্রিকেটার খেলাবার ব্যাপারে আগে থেকেই ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোর কাছ থেকে একটা প্রেসার পাচ্ছিলাম। আমরা তাই লিখিত মত চেয়েছি। একটা ফ্র্যাঞ্চাইজি বাদে মোটামুটি সবাই পাঁচজন করে বিদেশি মূল একাদশে খেলাবার পক্ষে মত দিয়েছে। আমরাও বিবেচনা করেছি, দল বেড়েছে। সেক্ষেত্রে আমরাও অনুমতি দিচ্ছি।’

 

সানোয়ার-জুপিটার নিষিদ্ধ

রংপুর রাইডার্স দলটি এবার কিনে নিয়েছেন দেশের বৃহত্তর কর্পোরেট প্রতিষ্ঠান বসুন্ধরা গ্রুপ। তবে শেষ আসরে রংপুর রাইডার্সের ম্যানেজার সানোয়ার হোসেন ও ক্রিকেটার জুপিটার ঘোষকে নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল। গতকাল সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়েছে, বিপিএলের কোনো কার্যক্রমে অংশ নিতে পারবেন না তারা। আগের আসরে ম্যানেজারের অনুমতি না নিয়ে মাঝরাতে টিম হোটেলে একজন নারীকে নিয়ে যান জুপিটার। আরো কয়েকটি বিষয়ে শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগ ছিল তার বিরুদ্ধে। তার আগে জুপিটার অভিযোগ করেন দলের ম্যানেজার সানোয়ার হোসেন তাকে ম্যাচ ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব দিয়েছিলেন। এই নিয়ে তাৎক্ষণিক ভাবে এই দু’জনকে বিপিএল থেকে সাময়িকভাবে নিষিদ্ধ করা হয়েছিল। তাদের নিষিদ্ধ করা নিয়ে গভর্নিং কাউন্সিলের সদস্য সচিব ইসমাইল হায়দার মল্লিক বলেন, ‘জুপিটার ঘোষের নাম প্লেয়ার্স লিস্টে থাকবে না। আর সানোয়ার ভাইয়ের নাম যেহেতু প্রথম বিপিএলেও ফিক্সিংয়ের সময় এসেছিল। তিনি ফ্র্যাঞ্চাইজিদের সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকতে পারবেন না। বিপিএলে বিতর্কিত কাউকে আমরা সবসময়ই অনুৎসাহিত করি।’

 

 

 

অন্যদিকে তাদের বিষয়ে তদন্ত করেছিল বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল। অভিযোগের সত্যতা মিলেছে কিনা- এমন প্রশ্নের জবাবে মল্লিক বলেন, ‘একটা ছিল শৃঙ্খলাজনিত ইস্যু, আরেকটা ছিল অনৈতিক প্রস্তাব দেয়ার ব্যাপার। দুইটা অভিযোগের ক্ষেত্রে আমরা দেখেছি জুপিটার ঘোষ শৃঙ্খলা ভেঙেছেন। অনৈতিক প্রস্তাবের ক্ষেত্রে শক্ত কোনো প্রমাণ যে আমরা পেয়েছি তা কিন্তু নয়। সানোয়ার ভাই প্রথম দুই আসরে ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটর্সের ম্যানেজার ছিলেন। তখন ফিক্সিংয়ের অভিযোগ উঠেছিল ওনার বিরুদ্ধেও। আমরা চাই না বিতর্কিত কেউ বিপিএলের সঙ্গে যুক্ত থাকুক।’

Comments are closed.







পাঠক

Flag Counter



Developed By : ICT SYLHET

Developer : Ashraful Islam

Developer Email : programmerashraful@gmail.com

Developer Phone : +8801737963893

Developer Skype : ashraful.islam625

error: Content is protected !!