আপডেট ৩৫ min আগে ঢাকা, ২৬শে মে, ২০১৯ ইং, ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৯শে রমযান, ১৪৪০ হিজরী

Breaking News
{"effect":"fade","fontstyle":"normal","autoplay":"true","timer":4000}

প্রচ্ছদ মুক্তমত

Share Button

স্বেচ্ছাসেবক দলের ৩৭তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠা করার দৃঢ় অঙ্গীকার-০১

| ২৩:৩২, আগস্ট ২০, ২০১৭

মোঃ শামীম হোসেন বিদ্যুৎঃ

 

বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদ চেতনা বুকে ধারণ করে সেবা, শৃঙ্খলা, ঐক্য, প্রগতি এই মূলমন্ত্র নিয়ে দেশ ও দেশের মানুষের চরম দুঃসময়ে পাশে থেকে আর্তমানবতার সেবার অঙ্গীকার নিয়ে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের পথ চলা শুরু। ১৯৮০ সালে ১৯ আগস্ট  বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি, বাংলাদেশের স্বাধীনতার ঘোষক, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদের প্রবর্তক, জাতীয় ঐক্যের প্রতীক ও গণ মানুষের প্রাণ প্রিয় নেতা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান এর অনুমোদন ক্রমে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি’র অন্যতম অঙ্গসংগঠন হিসেবে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের প্রাতিষ্ঠানিক যাত্রা শুরু। হাটি হাটি পা পা করে আজ  ৩৭তম বছরে পদার্পণ করতে যাচ্ছে। আজকে এই শুভ প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে গভীর শ্রদ্ধা ভরে স্মরণ করছি বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের প্রতিষ্ঠাতা, মহান স্বাধীনতার ঘোষক, মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি, জাতির দুঃসময়ের কান্ডারী, বহুদলীয় গণতন্ত্রের প্রতিষ্ঠাতা ও জাতীয় ঐক্যের প্রতীক শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান বীর উত্তম কে। স্মরণ করছি মহান মুক্তিযুদ্ধে অগণিত শহীদদের। আরও স্মরণ করছি বাংলাদেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় অংশ গ্রহণ করে মানুষের পাশে দাঁড়াতে গিয়ে যে সকল স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতা কর্মীরা তাঁদের জীবন উৎসর্গ করেছেন। বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দল দীর্ঘ পথ চলায় অতিক্রম করেছে অনেক ত্যাগ তিতিক্ষা। দেশের মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে সব সময়। স্বনির্ভর বাংলাদেশের রূপকার, গণ মানুষের নেতা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান ছিলেন অত্যন্ত দূরদৃষ্টি ও প্রখর ব্যক্তিত্ব সম্পন্ন একজন নেতা। তিনি মনে প্রাণে বিশ্বাস করতেন সেবা ও মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য অবশ্যই একটি স্বেচ্ছাসেবক সংগঠন দরকার।

 

 

 

সেই বিশ্বাস থেকে জাতীয় ঐক্যের প্রতীক শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান নিজ হাতে জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক সংগঠন গড়ে তোলেন। পরবর্তীতে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের জাতীয় কাউন্সিলের মাধ্যমে জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দল হিসাবে বিএনপি’র অন্যতম অঙ্গসংগঠনে রুপ লাভ করে। প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের শাহাদাৎ বরণের পর দেশের রাজনৈতিক প্রেক্ষাপট পরিবর্তিত হয়ে শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের রেখে যাওয়া বহুদলীয় গণতন্ত্র হুমকির সম্মুখীন হয়। স্বৈরাচার এরশাদ গলা টিপে গণতন্ত্রকে হত্যা করে। কুখ্যাত এরশাদ মানুষের মৌলিক অধিকার হরণ করে তার স্বৈরতন্ত্র কায়েম করে। পরবর্তীতে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃতে দীর্ঘ নয় বছর বিএনপি এবং স্বেচ্ছাসেবক দলসহ সকল সহযোগী ও অঙ্গসংগঠন গুলো কঠোর আন্দোলন সংগ্রাম করে গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠিত করে। কুখ্যাত স্বৈরাচার এরশাদ হটানোর আন্দোলনে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের অগণিত নেতা কর্মী জীবন দিয়েছেন। সহ্য করতে হয়েছে অমানবিক অত্যাচার নির্যাতন ও জেল জুলুম।

 

 

 

আজকে আমরা যখন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের ৩৭তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন করতে যাচ্ছি ঠিক এই সময় বাকশাল রূপী সেই চিরচেনা আওয়ামী অবৈধ সরকার মানুষের সকল মৌলিক অধিকার হরণ করে, বিরোধী রাজনৈতিক দলের নেতা কর্মীদের উপর অমানবিক নির্যাতন ও দমন পীড়ন করে হত্যা করছে। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার দীর্ঘ দিনের রাজনৈতিক অভিজ্ঞা ও তারুন্যের অহংকার,বুদ্ধিদীপ্ত তুখোড় জাতীয়তাবাদী নেতা, ভবিষ্যৎ রাষ্ট্রনায়ক জনাব তারেক রহমানের নেতৃতে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি ৯০’র গণ আন্দোলনে স্বৈরাচার এরশাদ পতন করার মত এই অবৈধ আওয়ামী সরকারকেও ক্ষমতা থেকে বিতাড়িত করে দেশের মানুষের ভোট ও ভাতের অধিকার ফিরিয়ে দেবে। ফিরিয়ে দিবে দেশের মালিকানা দেশের জনগণের হাতে। এই ক্ষেত্রে অগ্রণী ভূমিকা পালনের জন্য বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি’র অন্যতম অঙ্গসংগঠন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দল ৩৭তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে দৃঢ় ভাবে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের গড়া বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দল সর্বদা গণ মানুষের পাশে থেকে আর্তমানবতার সেবাই নিরালস কাজ করে যাচ্ছে।

 

 

 

জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের অনুকরণে আওয়ামীলীগ তাদের অঙ্গসংগঠন হিসেবে স্বেচ্ছাসেবক লীগ প্রতিষ্ঠা করে। বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক সব সময় ভাল কাজের প্রতিযোগিতাকে স্বাগত  জানাই। কিন্তু হাতে যাদের রক্তের দাগ লেগে আছে, ধর্ষণ,খুন,লুটপাট, দুর্নীতি যে দলের রন্ধেরন্ধে প্রবেশ করে আছে, মিথ্যা অপপ্রচারে যাদের সময় চলে যায়, ক্ষমতার ভাগাভাগি আর টেন্ডারবাজি করে যখন নিজেদের মধ্যেই খুনোখুনি লেগে থাকে তাদের পক্ষে কি সম্ভব স্বেচ্ছাশ্রমে মানুষের সেবাই নিয়জিত থাকা? এই ক্ষেত্রে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি ও অঙ্গসংগঠন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দল একেবারেই ভিন্ন। দেশে ১৯৮৮ সালে ভয়াবহ বন্যায় বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দল যেমন আর্তমানবতার সেবাই একনিষ্ঠ মনোনিবেশ করেছিল, ঠিক তেমনি ভাবে আর্তমানবতার সেবার পাশাপাশি স্বৈরাচার এরশাদের বিরুদ্ধে দূর্বার আন্দোলনের মাধ্যমে স্বৈরাচার পতন করে বাংলাদেশে গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠিত করেছিল।

 

 

 

বর্তমান আওয়ামী অবৈধ সরকার বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী শক্তিকে ভয় পায়। কারণ তারা জানে একমাত্র জাতীয়তাবাদী শক্তিই তাদের পতন ঘটাতে পারে। তাই বিএনপি’র নেতা কর্মীদের কোন স্বাভাবিক রাজনৈতিক কার্যক্রম চালাতে দিচ্ছে না। মামলা, হামলা, গুম, খুন, নির্যাতনের মাধ্যমে জাতীয়তাবাদী শক্তিকে দমিয়ে রাখতে চাই। আওয়ামী অবৈধ সরকার স্বৈরাচার থেকে একধাপ এগিয়ে। তারা রাজনৈতিক কার্যক্রমের পাশাপাশি ধর্মীয়, সামাজিক, এমন কি মানবিক কাজে বাধা দিচ্ছে। যে মানব সেবার ব্রত নিয়ে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দল গঠিত সেই মানব সেবার কাজেও আওয়ামী সন্ত্রাসীরা বর্বর হামলা করছে। সিলেট হাওড় অঞ্চলে দুর্গতদের মাঝে ত্রান বিতরণ কাজে বাধা দিয়েছে। এমনকি চট্রোগ্রাম, রাঙ্গামাটি মারাত্মক পাহাড় ধসের মত জাতীয় দুর্যোগে অসহায় মানুষের সেবা প্রদান করতে যাওয়া দলের মহাসচিব জনাব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সহ অনেক নেতা কর্মীদের উপর হামলা চালায় আওয়ামী সন্ত্রাসীরা।

 

চলবে…

 

(লেখকঃ কলামিস্ট, রাজনৈতিক কর্মী; যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দল যুক্তরাজ্য শাখা)।

 

মতামতঃ লেখকের নিজস্ব, লন্ডন টাইমস নিউজের সাথে এর কোন সম্পর্ক নেই।    

Comments are closed.







পাঠক

Flag Counter



Developed By : ICT SYLHET

Developer : Ashraful Islam

Developer Email : programmerashraful@gmail.com

Developer Phone : +8801737963893

Developer Skype : ashraful.islam625

error: Content is protected !!