আপডেট ২ min আগে ঢাকা, ১৮ই অক্টোবর, ২০১৭ ইং, ৩রা কার্তিক, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ২৬শে মুহাররম, ১৪৩৯ হিজরী

Breaking News
{"effect":"fade","fontstyle":"Bold","autoplay":"true","timer":4000}

প্রচ্ছদ এক্সক্লুসিভ

Share Button

লন্ডনের প্রথম মেয়র হিসেবে সাদিক খান ভারত, পাকিস্তানে যাচ্ছেনঃবাংলাদেশ নয় কেন ?

| ২৩:৪৭, অক্টোবর ১০, ২০১৭

লন্ডন টাইমস নিউজ । লন্ডন মেয়র । ১১ অক্টোবর । ২০১৭ঃ

sadiq-khan.jpg

চলতি বছরের শেষদিকে একযোগে ভারত ও পাকিস্তান সফর করবেন লন্ডনের মেয়র সাদিক খান। সোমবার এই সফরের কথা ঘোষণা করেন তিনি। মোট ছ’দিনের এই সফর সূচির তালিকায় রয়েছে ভারতের মুম্বই, দিল্লি ও অমৃতসর।

 

 

এরপর পাকিস্তানের লাহোর, ইসলামাবাদ ও করাচিতে যাবেন লন্ডনের মেয়র। ব্রেক্সিট প্রস্তাব পরবর্তী প্রেক্ষিতে ‘লন্ডন ইজ ওপেন’ কর্মসূচির সঙ্গে তাল মিলিয়ে ভারত ও পাকিস্তানের সঙ্গে ব্যাবসা-বাণিজ্য ও সাংস্কৃতিক সম্পর্ককে আরও মজবুত করাই লক্ষ্য এই সফরের।

 

 

লন্ডনের মেয়রের বক্তব্য, গত বছর ব্রেক্সিটের পক্ষে ভোটদানের রায় ঘোষণার পর থেকে ভারত বা পাকিস্তান, কোনও দেশ থেকেই লন্ডনে বিনিয়োগে ভাটা আসেনি।

 

 

তাঁর এই সংক্ষিপ্ত সফরে সাদিক খান দুই দেশেরই প্রবীণ রাজনীতিবিদ, শিল্পপতি ও মেয়রদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

 

 

সাম্প্রতিক কালের মধ্যেই তিনিই ব্রিটেনের প্রথম লন্ডন মেয়র এবং বড় মাপের রাজনীতিবিদ- যিনি একসঙ্গে ভারত ও পাকিস্তান সফরে যাচ্ছেন। ভারত ও পাকিস্তান, উভয় দেশেই শিকড় লন্ডনের মেয়রের। উপমহাদেশের প্রতি তাঁর এই ব্যক্তিগত বন্ধনই একযোগে দুই দেশ সফরের চালিকাশক্তি। যাতে শিক্ষাক্ষেত্র, ব্যাবসা ও বিনিয়োগে ভারত ও পাকিস্তানের প্রধান গন্তব্য থাকে লন্ডনই।

 

সাদিক খানের সফরসঙ্গী হচ্ছেন ব্যাবসা সংক্রান্ত ডেপুটি মেয়র রাজেশ আগরওয়াল। ব্যাবসা ও বিনিয়োগ সংক্রান্ত বৈঠকগুলোর  নেতৃত্ব দেবেন তিনি। আন্তর্জাতিক বাণিজ্য কর্মসূচির অন্তর্গত একটি ব্যবসায়িক প্রতিনিধিদল মুম্বইয়ে সাদিক খানের সঙ্গে থাকবেন। এরপর ওই প্রতিনিধিদল যাবে হায়দরাবাদ ও বেঙ্গালুরুতে।

 

 

সাদিক খান মেয়র নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে ৩৪০টির বেশি সংস্থা এই কর্মসূচির অন্তর্ভুক্ত হয়েছে। প্রায় ১২০ বিলিয়ন পাউন্ডের বিনিয়োগ নিশ্চিত করেছে।

 

ভারত-ব্রিটেন সাংস্কৃতিক বর্ষ পালনের অঙ্গ হিসাবে এই সফরসূচিতে বলিউড, শিক্ষা, প্রযুক্তি ও ক্রীড়াক্ষেত্রের একঝাঁক তারকার সঙ্গেও সাক্ষাৎ করবেন লন্ডনের মেয়র। পাশাপাশি এই সফরের মধ্যেই অভিবাসন, বিশেষ করে ছাত্রদের জন্য ভিসা, শিক্ষা পরবর্তী ওয়ার্ক ভিসাসহ বিভিন্ন ইস্যুতে আলোচনা হবে বলে খবরে প্রকাশিত হয়েছে ।

 

 

ভারতের পাশাপাশি পাকিস্তানের সাংস্কৃতিক, ক্রীড়া ও আর্থিক ক্ষেত্রের একঝাঁক বিখ্যাত মানুষের সঙ্গেও সাক্ষাৎ করবেন লন্ডনের মেয়র।

 

 

সাদিক খান বলেন, আমার ঠাকুরদা ও ঠাকুরমার জন্ম ভারতে। আমার বাবা-মা পাকিস্তান থেকে লন্ডনে পাড়ি দিয়েছিলেন। তাই উপমহাদেশের প্রতি আমি গভীর একাত্মতা অনুভব করি। তবে আমার কাছে আরও উৎসাহের বিষয় হল, এই সফরের ফলে লন্ডনবাসী প্রকৃতভাবেই উপকৃত হবেন। ব্যাবসা-বাণিজ্য, কর্মসংস্থান, বিনিয়োগ এবং সংস্কৃতি ও প্রযুক্তির বিনিময়ের ফলে লাভবান হবে লন্ডন। গোটা বিশ্বের সহযোগীদের জন্য দ্বার মুক্ত করে রেখেছে আমার শহর। চলতি বছরের শেষে লন্ডনের সঙ্গে ভারত ও পাকিস্তানের বন্ধুদের সম্পর্ক আরও দৃঢ় করে তোলার জন্য মুখিয়ে আছি। যদিও ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে যে উত্তেজনা রয়েছে, তাকে গুরুত্ব দিতে নারাজ লন্ডনের মেয়র। এপ্রসঙ্গে তাঁর বক্তব্য, লন্ডনে আমরা হলাম সহিঞ্চুতা, সম্মান ও বৈচিত্রের আলোকবর্তিকা। আমি প্রাণপণে সেটাই তুলে ধরার চেষ্টা কবর।

 

 

সাদিকের লন্ডন মেয়র নির্বাচনের সময়ে লেবার সমর্থিত বাঙালি ভোটার, নেতারা ছাড়াও কয়েক লক্ষ বাঙালি লন্ডনাররা ভোটের মাঠ গরম করে সাদিকের বিজয়ের ঢেউ তুলেছিলেন। আজ ব্রেক্সিট পরবর্তী ব্যবসা বাণিজ্য ও সাংস্কৃতির বন্ধন আরো দৃঢ় করতে সাদিক ভারত ও পাকিস্তান  যাচ্ছেন, প্রশ্ন হলো  বাংলাদেশ নয় কেন ? 

সাদিক বলেছেন, লন্ডনে আমরা হলাম সহিঞ্চুতা, সম্মান ও বৈচিত্রের আলোকবর্তিকা- লন্ডনের লেবার এবং সাদিক খান তার এই বক্তব্যের সার্থকতা ফুটিয়ে তোলার জন্য ঢাকা সফর এবং বাংলাদেশের সাথেও ব্রিটেনের ঐতিহাসিক সম্পর্কের নয়া সূচনায় ( ব্রেক্সিট পরবর্তী) ভুমিকা রাখবেন বলে আশা করি ।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *







পাঠক

Flag Counter



Developed By : ICT SYLHET

Developer : Ashraful Islam

Developer Email : programmerashraful@gmail.com

Developer Phone : +8801737963893

Developer Skype : ashraful.islam625

error: Content is protected !!