আপডেট ১২ ঘন্টা আগে ঢাকা, ২৫শে আগস্ট, ২০১৯ ইং, ১০ই ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২২শে জিলহজ্জ, ১৪৪০ হিজরী

Breaking News
{"effect":"fade","fontstyle":"normal","autoplay":"true","timer":4000}

প্রচ্ছদ এক্সক্লুসিভ

Share Button

ফ্রান্সে নির্বাচনঃএমান্যুয়েল ম্যাক্রো ও জ্য ম্যারি ল পেন লড়বেন ৭ই মে ২০১৭

| ২২:৩৩, এপ্রিল ২৪, ২০১৭

লন্ডন টাইমস নিউজঃ  ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রথম পর্বে প্রচলিত দলগুলির অভূতপূর্ব পরাজয় ঘটলো৷ উঠে এলেন দুই ‘প্রান্তিক’ প্রার্থী৷ তবে উগ্র দক্ষিণপন্থি প্রার্থী হালে পানি না পাওয়ায় ইউরোপসহ গোটা বিশ্ব স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেললো৷

রক্ষণশীল ও সমাজতন্ত্রী প্রার্থীদের পেছনে ফেলে প্রথম দুই স্থান দখল করলেন উদার, ইউরোপপন্থি প্রার্থী এমানুয়েল মাক্রোঁ ও দক্ষিণপন্থি ইউরোপবিরোধী প্রার্থী জঁ মারি ল্য পেন৷ এবার আগামী ৭ই মে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের দ্বিতীয় পর্বে তাঁদের মধ্যে সরাসরি লড়াই হবে৷

 

জয়ের ব্যবধান বেশি নয়-  মাক্রোঁ পেয়েছেন ২৩.৯ শতাংশ, ল্য পেন ২১.৪ শতাংশ৷ ফ্রান্সের ভোটাররা মূল স্রোতের রাজনৈতিক শক্তিগুলির প্রতি চরম বিরক্তি প্রকাশ করে তাদের শাস্তি দিয়েছেন৷ রক্ষণশীল দলের প্রার্থী ফ্রঁসোয়া ফিয়ঁ ১৯.৯ শতাংশ পেয়ে তৃতীয় স্থান দখল করেছেন৷ ক্ষমতাসীন সমাজতন্ত্রী দলের প্রার্থী বেনোয়া আমোঁ পেয়েছেন মাত্র ৬.৪ শতাংশ৷

 

প্রথম পর্বে জয়ের পর এমানুয়েল মাক্রোঁ তাঁর সমর্থকদের বলেন, মাসের পর মাস ধরে তিনি ফরাসি ভোটারদের ক্রোধ ও ভয়ের কথা শুনে আসছিলেন৷ তাঁরা পরিবর্তন চাইছিলেন বলেও শুনেছিলেন৷ মাক্রোঁ বলেন, এবার তিনি তাঁদের প্রত্যাশা পূরণ করতে ফরাসি রাজনীতির ভোল বদল করতে ও দেশকে আধুনিক করার কাজে মন দিতে চান৷ জাতীয়তাবাদের হুমকির মোকাবিলা করতে নির্বাচনের দ্বিতীয় পর্বে তিনি সব দেশপ্রেমীদের ঐক্যবদ্ধ করতে চান৷

 

উগ্র দক্ষিণপন্থি প্রার্থী ল্য পেন-এর জন্য প্রথম রাউন্ডে এই পরাজয় হজম করা মোটেই সহজ নয়৷ অনেক জনমত সমীক্ষায় তিনি এগিয়ে ছিলেন৷ গত কয়েক বছরে তিনি পেশাদারী দক্ষতার সঙ্গে তাঁর দলকে ক্ষমতায় আসার জন্য প্রস্তুত করে আসছিলেন৷ তারপর নির্দলীয়, আনকোরা নতুন এক প্রার্থী তাঁকে অতিক্রম করে এগিয়ে যাওয়ায় বেশ বড় ধাক্কা খেলেন তিনি৷ ফ্রান্সের নির্বাচনি ইতিহাসে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের দ্বিতীয় পর্বে এতকাল সব দল তাদের কোন্দল ভুলে দক্ষিণপন্থিদের বিরুদ্ধে একজোট হয়ে এসেছে৷ অতএব আগামী ৭ই মে এমানুয়েল মাক্রোঁ বিপুল ভোটে জয়লাভ করবেন, এমনটাই আশা করা যায়৷ দুই বড় দল অবিলম্বে মাক্রোঁ’র প্রতি সমর্থন জানিয়েছে৷ সেই ব্যবধান যতটা সম্ভব কমানোই হবে ল্য পেনের সামনে বড় চ্যালেঞ্জ৷

 

নির্বাচনের পর ইউরোর বাজার চাঙ্গাঃ

ফ্রান্সের নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশিত হবার পর ইউরো-র বিনিময় মূল্য এক ধাক্কায় বেড়ে গেছে৷ আর্থিক বাজার স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছে৷ জার্মান সরকারের এক মুখপাত্র ইউরোপপন্থি প্রার্থী মাক্রোঁ-র সাফল্যে ইতিবাচক প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন৷ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সিগমার গাব্রিয়েল বলেছেন, তিনি নিশ্চিত যে এমানুয়েল মাক্রোঁ ফ্রান্সের আগামী প্রেসিডেন্ট হচ্ছেন৷ জার্মানির আসন্ন নির্বাচনে এসপিডি দলের প্রার্থী মার্টিন শুলৎস-ও সন্তোষ প্রকাশ করেছেন এবং ফ্রান্সের সব গণতন্ত্রমনস্ক মানুষকে ঐক্যবদ্ধ হবার ডাক দিয়েছেন৷

 

যে শঙ্কা ছিলোঃ

মারিন ল্য পেন, ন্যাশনাল ফ্রন্ট (ফ্রান্স)

ফ্রান্সের এবারের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন আন্তর্জাতিক মঞ্চেও বাড়তি গুরুত্ব পাচ্ছে৷ প্রথমত, সে দেশের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন নিয়ে এমন মাত্রার অনিশ্চয়তা এর আগে কখনো দেখা যায়নি৷ ইউরোপীয় ইউনিয়নের ভবিষ্যতও অনেকটাই এবারের নির্বাচনের উপর নির্ভর করছে৷ মারিন ল্য পেন-এর মতো ইইউ ও ইউরো-বিরোধী নেত্রী ক্ষমতায় এলে এই রাষ্ট্রজোটের মৌলিক কাঠামো বড় ধাক্কা খেতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে৷ তাছাড়া নেদারল্যান্ডস-এ জনমোহিনী পপুলিস্ট রাজনৈতিক শক্তির পরাজয়ের পর ল্য পেন-এরও একই দশা হলে ইউরোপ হাঁফ ছেড়ে বাঁচবে৷

মাক্রোঁ

অন্যদিকে মাক্রোঁ ইউরোপীয় ইউনিয়নের জোরালো প্রবক্তা৷ তিনি জার্মানির সমর্থন নিয়ে ইউরোপে সামাজিক সুরক্ষার কাঠামো আরও জোরদার করতে চান৷ তাঁর সম্ভাব্য জয়কে স্বাগত জানাচ্ছে অনেক মহল৷

 

 

 

 

Comments are closed.







পাঠক

Flag Counter



Developed By : ICT SYLHET

Developer : Ashraful Islam

Developer Email : programmerashraful@gmail.com

Developer Phone : +8801737963893

Developer Skype : ashraful.islam625

error: Content is protected !!