আপডেট ১২ ঘন্টা আগে ঢাকা, ২৫শে আগস্ট, ২০১৯ ইং, ১০ই ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২২শে জিলহজ্জ, ১৪৪০ হিজরী

Breaking News
{"effect":"fade","fontstyle":"normal","autoplay":"true","timer":4000}

প্রচ্ছদ জাতীয়

Share Button

হেফাজতের সঙ্গে আমাদের কোন চুক্তি হয়নি, চুক্তির প্রশ্নই ওঠে না: প্রধানমন্ত্রী

| ১৩:১৯, এপ্রিল ২৫, ২০১৭

ঢাকা অফিস: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বাংলাদেশের শিক্ষার ক্ষেত্রে কওমী মাদ্রাসার অবদান রয়েছে। এটাকে অস্বীকার করা যাবে না। আপনারা একবার চিন্তা করে দেখেন ১৪ লাখ শিক্ষার্থী ৭৫ হাজার কওমী মাদ্রাসায় শিক্ষা লাভ করছে। তাদের কারিকুলাম কী? কী তারা শিখছে কেউ বলতেই পারছে না। সেই জায়গায় আমরা উদ্যোগ নিয়েছি, যে উদ্যোগ আমাদের বহু আগেই নেয়া উচিত ছিল, যাতে করে তাদের শিক্ষা যেন মান সম্পন্ন হয়। আর এই শিক্ষার মাধ্যমে তাদের যেন কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা হয়। জীবন-জীবিকা নির্বাহ করে নিজের পায়ে দাঁড়াতে পারে।

‘আর বিএনপি বলছে, আমি নাকি হেফাজতের সঙ্গে সন্ধি করে ফেলেছি। চুক্তি করে ফেলেছি। চুক্তিটা কী করলাম? হেফাজতের সঙ্গে আমাদের কোন চুক্তি হয়নি। চুক্তির প্রশ্নই ওঠে না।’

সোমবার রাতে গণভবনে আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার নির্বাচনে মনোনয়ন বোর্ডের সভায় সভাপতির ভাষণে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, ২০০৯ সালে সরকার গঠন করার পর আমি যখন রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন যমুনাতে ছিলাম সে সময় মাদ্রাসার শিক্ষকদের নিয়ে বসি, আলাপ-আলোচনা করি এবং তাদের ওপর দায়িত্ব দেই-আপনারাই ঠিক করেন আপনাদের কারিকুলাম কি হবে, আমরা একটা সনদ দিতে চাই। তিনি বলেন, সংবিধানেই আছে শিক্ষা সার্বজনিন এবং শিক্ষাকে সবচেয়ে গুরুত্ব দেয়া রয়েছে। তাই নাগরিক হিসেবে তাদের অধিকার আমাদের সংরক্ষণ করতে হবে। এটা হলো বাস্তব কথা।

প্রধানমন্ত্রী হাওর এলাকার পানিতে ইউরেনিয়াম থাকার অপপ্রচার ছড়ানোর জন্য বিএনপিকে অভিযুক্ত করে বলেছেন, তারা পুরো বিষয়টি নিয়ে মিথ্যা খবর ছড়িয়ে মানুষকে বিভ্রান্ত করছে।

তিনি বলেন, যেসব এলাকা বন্যাকবলিত হয় সেখানে সাধারণত মাছ ও জলজ প্রাণি মারা যায়। আজকে হাওর অঞ্চলে বাঁধ ভেঙে গেছে। ক্ষেতের ফসল নষ্ট হয়ে গেছে, হাওরের মানুষেরা দুর্ভোগে আছে, সেখানে বন্যা এলেই এ ধরনের ঘটনা ঘটে থাকে। তবে, আল্লাহর রহমতে ২০০৯ সালে সরকার গঠনের পর থেকে এতো খারাপ অবস্থা আর হয়নি। এটা প্রকৃতির নিয়ম, প্রাকৃতিকভাবে এ ধরনের ঘটনা ঘটতে পারে। কিন্তু আমরা এ ব্যাপারে চোখ কান বন্ধ করে বসে নেই।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, যথন কোথাও এরকম বন্যা ও জলোচ্ছ্বাস হয়, তখন সেখানকার মাছ ও জলজপ্রাণী মারা যায়। সেটাও কেন মারা যাচ্ছে সে বিষয়ে আমরা খবর নিচ্ছি। কিন্তু, নানা ধরনের অপপ্রচার চালিয়ে মানুষের মধ্যে এই যে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করা এটা অবশ্যই কারো কারো চরিত্র। এক শ্রেণীর লোক আছে তারা জ্ঞান পাপি। তারা দেখে হোক না দেখে হোক উদ্দেশ্যমূলকভাবে নানা কথা বলে বেড়াবে।

আওয়ামী লীগ সভাপতি আরো বলেন, হাইকোর্টে যে স্ট্যাচু করা হয়েছে সেটা নিয়েও কথা উঠেছে। গ্রিক গডেস অব জাস্টিস, থেমেসিস। তার স্ট্যাচু। কিন্তু গ্রিক স্ট্যাচুকে যখন শাড়ি পড়িয়ে দাঁড় করিয়ে দেয়া হলো- আমি সে বিষয়টিই চিফ জাস্টিসকে বলেছিলাম।

তিনি বলেন, স্ট্যাচুতো আমাদের দেশে অনেক আছে, থাকবে। এটাতো হাজার বছরের পুরনো একটা বিষয়। হাইকোর্টের মতো জায়গায় হঠাৎ এটা স্থাপন করা হলো কেন? ঈদগাহে নামাজ পড়তে গেলে এটা কেন আড়াল করে দেয়া হলো না। আর স্ট্যাচু যখন থাকবে তখন এটাকে কেন বিকৃত করা হলো। কাজেই আমি নিজেও বলেছি এটা আমার পছন্দ না। এটা আমি চিফ জাস্টিসকে বলেছি এবং যে ভাস্কর করেছেন তাকেও বলেছি।

Comments are closed.







পাঠক

Flag Counter



Developed By : ICT SYLHET

Developer : Ashraful Islam

Developer Email : programmerashraful@gmail.com

Developer Phone : +8801737963893

Developer Skype : ashraful.islam625

error: Content is protected !!