আপডেট ১৬ min আগে ঢাকা, ২৩শে জুলাই, ২০১৮ ইং, ৮ই শ্রাবণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ৮ই জিলক্বদ, ১৪৩৯ হিজরী

Breaking News
{"effect":"fade","fontstyle":"normal","autoplay":"true","timer":4000}

প্রচ্ছদ খেলা স্লাইড

Share Button

অপেশাদারি কলম্বিয়াকে বিধবস্ত করে ইংল্যান্ড কোয়ার্টার ফাইনালে

| ২১:২৪, জুলাই ৩, ২০১৮

খেলার শুরুতেই কলম্বিয়া ফিজিক্যালি এবং অপেশাদারী শুলভ আক্রমনের মাধ্যমে ইংল্যান্ড দলকে হারাতে চায়। তাদের খেলার ধরনেই বুখা যায় তারা ইংল্যান্ড দলের রণ কৌশলে ভীত এবং সন্ত্রস্থ। তাদের কাছে একটাই পথ শারিরিকভাবে আক্রমনের মাধ্যমে ইংল্যান্ড দলকে কাবু করে ভয় ঢুকিয়ে গোল করা। তারা একের পর এক ফিজিক্যাল আক্রমন করতে থাকে। এমনকি ডেলি আলীকে ফিজিক্যালি প্যানাল্টি বক্সে আক্রমণ করে। হেন্ডারসনকে অহেতুকভাবে বুকে এবং থুতনিতে এমনভাবে আক্রমণ করে যা রিপ্লে ও ভিএআর এ স্পষ্ট বুঝা যাচ্ছিলো। তখন বল খেলা চলছিলোনা। ইংল্যান্ড ফ্রি কিকের প্রস্তুতি নিচ্ছিলো। এমন সময় হেন্ডারসনকে বুকে ও থুতনিতে আক্রমণ করে কলম্বিয়া। ইংল্যান্ড দল ভিএআর দাবি করলেও রেফারির চোখে পড়েনি। এরকম অপেশাদারি জংলি আক্রমণ লাল কার্ড অবধারিত এবং সেটাই ফিফার নিয়ম। অথচ রেফারি কেবল হলুদ কার্ড দেয়।কেনকে তারা বার বার আক্রমণ করে ফিজিক্যালি।

গোলরক্ষককে ফাঁকি দিয়ে মাত্র ১২ গজ দূর থেকে বলটা তিন কাঠির মধ্যে রাখতে হবে। মানসিকভাবে যারা একটু শক্তিশালী, তাদের জন্য কাজটা কঠিন নয়। কিন্তু এই অল্প দূরত্ব থেকে ২৪ ফুট প্রশস্ত ও আট ফুট উঁচু গোলপোস্টে বল রাখা কতটা যে কঠিন, ইংল্যান্ডের চেয়ে ভালো আর কোনো দলের জানার কথা নয়। কারণ এর আগে টাইব্রেকারে তিনবার হেরে বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিয়েছিল ইংলিশরা। দৃশ্যটা এবার বদলেছে। কলম্বিয়ার বিপক্ষে টাইব্রেকারে ৪-৩ ব্যবধানে জয় নিয়ে ইংল্যান্ড পৌঁছে গেল কোয়ার্টার ফাইনালে।

নির্ধারিত সময়ে খেলাটি ১-১ গোলে ড্র ছিল। অতিরিক্ত যোগ করা সময়েও সমতা। এরপরে ম্যাচ গড়ায় ভাগ্য ও স্নায়ুর পরীক্ষায়। সেখানেই বাজিমাত করেছে তারুণ্য নির্ভর ইংলিশ দল।

ইংল্যান্ড,

শেষ ষোলোর সবশেষ ম্যাচে স্পার্টাক স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হয় ইংল্যান্ড ও কলম্বিয়া। শুরু থেকেই মাঝমাঠ নিয়ন্ত্রণে নিয়ে খেলতে থাকে ইংলিশরা। ৬ মিনিটে প্রথম সুযোগ পায় তারা। ডি বক্সের সামান্য বাইরে ফ্রি কিক পায় কেনরা। তা থেকে দুর্দান্ত শট নেন অ্যাশলি ইয়াং। তবে তার শট দারুণ নৈপুণ্যে পাঞ্চ করে প্রতিহত করেন ডেভিড ওস্পানিয়া। ১৬ মিনিটে ট্রিপিয়েরের ক্রসে গোলমুখে হেড করেন কেন। কিন্তু তা অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়।

এরপর অধিকাংশ সময় বল দখলে রেখে আক্রমণে উঠে ইংল্যান্ড। তবে তাদের পরিকল্পিত কোনো আক্রমণই আলোর মুখ দেখেনি। কলম্বিয়ার জমাট রক্ষণভাগ ডিঙাতে পারেনি তারা। মাঝে মাঝে বল নিয়ে ক্ষীপ্রগিতর দৌড় দিয়েছে কলম্বিয়ানরা। তবে তাদের সব প্রচেষ্টা থেমেছে প্রতিপক্ষের ডি বক্সের সামনে গিয়ে। ৪১ মিনিটে আবার ডি বক্সের বাইরে ফ্রি কিক পায় ইংল্যান্ড। এবার শট নেন ট্রিপিয়ের। তবু সাফল্য আসেনি। ফলে প্রথমার্ধ শেষ হয় গোলশূন্য অবস্থায়।

Dier just about scores to clinch victory.

বিরতির পরও আক্রমণের গতি সচল রাখে ইংল্যান্ড। এবার গোল পেয়ে যায় ১৯৬৬ বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। ৫৪ মিনিটে ডি বক্সে হ্যারি কেনকে গুরুতর ফাউল করেন কার্লস সানচেজ। সঙ্গে সঙ্গে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। তা থেকে নিশানাভেদ করতে মোটেও ভুল করেননি কেন। এ নিয়ে এবারের বিশ্বকাপে ব্রিটিশ গোলমেশিনের গোল দাঁড়ায় ৬টি। পরে পেনাল্টি শুটআউট থেকে করেন আরেকটি। এর সুবাদে গোল্ডেন বুট জয়ের দৌড়ে এগিয়ে গেলেন তিনি।

৮১ মিনিটে সুবর্ণ সুযোগ পায় ল্যাতিন আমেরিকার দলটি। তবে গোলরক্ষককে একা পেয়েও ঠিকানায় বল পাঠাতে পারেননি হুয়ান কুয়াদ্রাদো। পরক্ষণে ফের সুযোগ পায় তারা। এবার মিস করেন রাদামেল ফ্যালকাও। এতে মনে হচ্ছিল হেরেই মাঠ ছাড়ছে তারা।

Jordan Pickford saves from Carlos Bacca.

কিন্তু না, নাটকের বাকি ছিল তখনও। একেবারে শেষ মুহূর্তে নাটকীয়ভাবে ঘুরে দাঁড়ায় কলম্বিয়া। আবারো ত্রাতা হিসেবে আবির্ভূত হন ইয়েরি মিনা। ইনজুরি টাইমের তৃতীয় মিনিটে দুর্দান্ত হেডে প্রতিপক্ষের জালে বল জড়িয়ে দলকে সমতায় ফেরান তিনি। ফলে ১-১ সমতায় শেষ হয় নির্ধারিত ৯০ মিনিটের খেলা।

স্বভাবতই ম্যাচ গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে। তবে এ সময়েও নিষ্পত্তি ঘটেনি ঘটনাবহুল ম্যাচটির। ১-১ সমতাতেই পরিসমাপ্তি ঘটে। ফলে খেলা গড়ায় টাইব্রেকার নামক ভাগ্যে। যেখানে ৪-৩ গোলে জিতে যায় ইংল্যান্ড। ফলে বিজয়ীর বেশে মাঠ ছাড়েন গ্যারেথ সাউথগেটের শিষ্যরা।

ইংল্যান্ড দল প্রমাণ করলো তারা তারুণ্যের দল, শক্তি নির্ভর দল, খেলায় অপ্রতিদ্বন্ধি। প্যানাল্টি শ্যুট আউটে তারা এখন অনেক সক্ষম।

Comments are closed.







পাঠক

Flag Counter



Developed By : ICT SYLHET

Developer : Ashraful Islam

Developer Email : programmerashraful@gmail.com

Developer Phone : +8801737963893

Developer Skype : ashraful.islam625

error: Content is protected !!