২৫ বছরের মধ্যে বাংলাদেশে মানুষের বসবাসের যোগ্য থাকবে না:সৈয়দ আবুল মোকসেদ

প্রকাশিত: ১:৫৫ অপরাহ্ণ, জুলাই ২৭, ২০১৮ | আপডেট: ১:৫৫:অপরাহ্ণ, জুলাই ২৭, ২০১৮

রিপন আনসারী,মানিকগঞ্জ

 

মানিকগঞ্জ পাওয়ার জেনারেশন লিঃসহ সকল অবৈধ দখলের হাত থেকে ধলেশ্বরী নদী রক্ষার দাবীতে মানববন্ধন ও সমাবেশ করেছে বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা)।
শুক্রবার দুপুরে সিংগাইরে ধলেশ্বরী নদীর উপর শহীদ রফিক সেতুতে ঘন্টাব্যাপী এই মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করা হয়।
মানববন্ধনে বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) সহ-সভাপতি সৈয়দ আবুল মোকসেদ বলেন,অর্থনীতি ও রাজনীতির মুক্তির জন্য বাংলাদেশ ৭১ সালে স্বাধীন হয়েছিল। ৭১ সালের ১৬ই ডিসেম্বর আমরা রাজনৈতিক মুক্তি অর্জন করেছি। তার পর থেকে আমাদের দেশে চলছে অর্থনৈতিক মুক্তির সংগ্রাম। দেশ অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে অনেক দুর এগিয়ে এসেছে।
অত্যান্ত দুঃখের বিষয় অর্থনৈতিক অগ্রগতির কথা বলে এক শ্রেণীর শিল্পপতি ব্যবসায়ী যে ভাবে নদী দুষণ করছে এতে অর্থনৈতিক ভাবে যে দেশ ধংস হয়ে যাবে শুধু তাই নয় আগামী ২৫ বছরের মধ্যে বাংলাদেশে মানুষের বসবাসের যোগ্য থাকবে না। নদীকে যে ভাবে হত্যা করা হচ্ছে এটা জাতীকে হত্যা করার নীল নকশা বলে আমার কাছে মানে হচ্ছে।
আজকে সব চেয়ে বেশী বিপন্ন বাংলাদেশের নারী এবং নদী। আগামী কাল থেকে ধলেশ্বরী নদী দখলকারী মানিকগঞ্জ পাওয়ার জেনারেশন লিঃ এর নির্মান কাজ বন্ধের দাবী জানান অন্যথায় বৃহত্তর আন্দোলনের হুসিয়ারী দেন তিনি।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের সদস্য শারমীন মুরশিদ,বাপার সমন্বায়ক মিহির বিশ্বাস,বাপার যুগ্ম সম্পাদক শরিফ জামিলুর, ধলেশ্বরী বাঁচাও আন্দোলনের মানিকগঞ্জের আহ্বায়ক আজাহারুল ইসলাম আরজু,অ্যাডভোকেট ইতি রানী সাহা.কৃষœপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল হামিদ,প্রভাষক যগিদাস চন্দ্র বালু প্রমুখ।
উল্লেখ্য সিংগাইরের শহীদ রফিক সেতুর পশ্চিম পাশে ধলেশ্বরী নদী দখলে অভিযোগ উঠেছে ঢাকা নর্দান পাওয়ার জেনারেশনস লিমিটেডের বিরুদ্ধে। প্রতিষ্ঠানটি মানিকগঞ্জ পাওয়ার জেনারেশন লিঃ নামের একটি বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র গড়ে তোলার জন্য সেখানে নদী ভরাট করে চলেছে।