আপডেট ৩ ঘন্টা আগে ঢাকা, ২৪শে মার্চ, ২০১৯ ইং, ১০ই চৈত্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ১৫ই রজব, ১৪৪০ হিজরী

Breaking News
{"effect":"fade","fontstyle":"normal","autoplay":"true","timer":4000}

প্রচ্ছদ জাতীয়

Share Button

‘রাজশাহীতে বিএনপির ২৪ এজেন্ট নিখোঁজ’:নির্বাচনী পরিবেশে খুশি লিটনসহ অন্যরা

| ১৪:৩৬, জুলাই ২৯, ২০১৮

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী থেকে | ২৯ জুলাই ২০১৮, রোববার |

বিএনপির চব্বিশ জন পোলিং এজেন্টকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। নির্বাচনের ঠিক আগের দিন রোববার দুপুরে সাংবাদিকদের এতথ্য জানিয়েছেন বিএনপির মেয়র প্রার্থী মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল। তিনি দুপুরে নির্বাচন কমিশনে আবারো অভিযোগ দিতে গিয়ে একথা বলেন। এসময় তিনি বলেন, এই নির্বাচনকে বিএনপি আন্দোল হিসেবে দেখছে। সোমবার বিএনপির নেতাকর্মীদের কাফনের কাপড় মাথায় বেধে ভোট কেন্দ্রে যাওয়ার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। যেকোন পরিস্থিতি মোকাবিলা করার জন্য বিএনপি প্রস্তুত।

তিনি বলেন এই আন্দোলন সফল হবেই। জনগণ ধানের শীষে ভোট দেয়ার জন্য উদগ্রীব হয়ে আছে। পুলিশ এবং আওয়ামী লীগের নেতা কর্মীরা ভোটারদের বাড়িবাড়ি গিয়ে হুমকি দিয়ে আসছে। এই হুমকিতেও কাজ না হওয়ায় পুলিশ দিয়ে নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তার করানো হচ্ছে।

সোমবার সিটি নির্বাচনের আগের দিন রোববার দপুরে দলীয় নেতা-কর্মীদের গ্রেফতার ও হয়রানির অভিযোগ রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয়ে জমা দেয়ার পর সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেছেন বুলবুল।

কাফনের কাপড় মাথায় দিয়ে ভোট কেন্দ্রে যাবেন জানিয়ে বিএনপির এই প্রার্থী বলেন, সরকারের অব্যাহত নির্যাতন চলছে বিএনপি ও জোটের নেতাদের ওপর। অনেককে হুমকি দিয়ে এলাকা ছাড়া করা হয়েছে। গত তিন দিনে জেলা বিএনপি নেতা দেলোয়ার হোসেনসহ অনেককে বাড়ি থেকে চলে যাবার জন্য প্রশাসনের পক্ষ থেকে হুমকি দেয়া হয়েছে। তাদের হুমকিতে এ পর্যন্ত ২৩-২৪ জন পোলিং এজেন্টকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না বলেও অভিযোগ করেন বুলবুল।

তবে এসময় সুনির্দিষ্টভাবে তাদের নাম পরিচয় জানতে চাইলে বুলবুল জানাতে ব্যর্থ হন।

গোয়েন্দা পুলিশ রাজশাহীর মানুষকে নির্যাতন করছে উল্লেখ করে বুলবুল বলেন, নির্বাচনের কোন পরিবেশ নেই। তিনি কাফনের কাপড় মাথায় পড়ে ভোট কেন্দ্রে যাবেন এবং খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য আগামী দিনের আন্দোলন সংগ্রাম অব্যাহত রাখবেন বলেও ঘোষণা দেন।

এসময় তার সঙ্গে বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা মিজানুর রহমান মিনুসহ কয়েকজন নেতা উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে রোববার নির্বাচন বা বুলবুলের অভিযোগ নিয়ে সংবাদকর্মীদের সঙ্গে কোন কথা বলেননি আওয়ামী লীগ প্রার্থী এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন।

তবে এর আগের দিন সংবাদ সম্মেলন করে খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, বিএনপি নির্বাচনে হারলেই বলে অস্বচ্ছ হয়েছে। এবারো নিশ্চিত পরাজয় বুঝতে পেরে শুরু থেকেই অভিযোগ করে আসছে। অভিযোগ করা তাদের অভ্যাসে পরিণত হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, বিএনপির ভেতরে চরম দ্বন্দ্ব চলছে। এছাড়া অনেকের বিরুদ্ধে নাশকতার মামলা আছে। চলমান দ্বন্দ্ব সংঘাত ও গ্রেফতার আতংকের কারণে অনেকেই বুলবুলের এজেন্ট হতে চাচ্ছে না। এবিষয়টিও তারা আমাদের ওপর চাপাতে চাচ্ছে।

নির্বাচনের পরিবেশ খুব ভালো আছে বলেও শনিবার উল্লেখ করেন খায়রুজ্জামান লিটন।

গণসংহতি আন্দোলনের স্বতন্ত্র প্রার্থী মুরাদ মোর্শেদ (হাতি মার্কা) রোববারর সুষ্ঠু নির্বাচনের বিষয়ে আশাবাদী হওয়ার কথা জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, এখন পর্যন্ত নির্বাচনের পরিবেশ মন্দের ভাল আছে। এখনো বড় ধরনের নাশকতা ও সংঘাত সংঘর্ষ হয়নি। রোববার সকাল থেকে আত্মীয়-স্বজনদের বাড়িতে দাওয়াত খেয়ে বেরিয়েছি আর পোলিং এজেন্টদেরকে নিয়ে নির্বাচনী কার্যালয়ে সভা করেছি। জনগণের ভোটাধিকার নিজেদের রক্ষা করার আহবান জানান তিনি।

বাংলাদেশ জাতীয় পার্টি (মতিন গ্রুপ) প্রার্থী হাবিবুর রহমান নির্বাচনী পরিবেশ এখন পর্যন্ত ভালো আছে উল্লেখ করে বলেন, শান্তিপূর্ণ ভোট হবে বলে মনে হচ্ছে। ভোট চুরি এখনকার যুগে করা খুব কঠিন। বিশ্বাস করা যায় না। তবে বিভিন্ন প্রার্থী বলছে তেমন কিছু হতে পারে। আমার কাছে এসব কথার তেমন গুরুত্ব নেই। রোববার মোবাইলে কুশল বিনিময় করেছি ভোটার ও স্বজনদের সাথে।

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী শফিকুল ইসলাম (হাতপাখা মার্কা) বলেন, ছোটখাট কিছু সমস্যা ছাড়া এখন পর্যন্ত পরিবেশ ভাল আছে। সামনে জাতীয় সংসদ নির্বাচন। নির্বাচন কমিশন মডেল হিসেবে তিন সিটি গ্রহণযোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠিত করবে বলে আশা করি। তবে আমরা সেনাবাহিনী চেয়েও পাইনি। এজেন্টদের প্রশিক্ষণ দিয়ে দিন অতিবাহিত করেছি।

Comments are closed.







পাঠক

Flag Counter



Developed By : ICT SYLHET

Developer : Ashraful Islam

Developer Email : programmerashraful@gmail.com

Developer Phone : +8801737963893

Developer Skype : ashraful.islam625

error: Content is protected !!