আপডেট ৪৪ min আগে ঢাকা, ২৩শে অক্টোবর, ২০১৮ ইং, ৮ই কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ১৩ই সফর, ১৪৪০ হিজরী

Breaking News
{"effect":"fade","fontstyle":"normal","autoplay":"true","timer":4000}

প্রচ্ছদ অর্থ-বণিজ্য

Share Button

“বর্জ্য ব্যবস্থাপনাকে শিল্পে বদলে দেয়া সম্ভব, দরকার জড়িতদের জীবনমান উন্নয়ন:মশিউর রহমান রাঙ্গা

| ১৫:১৪, জুলাই ২৯, ২০১৮

ঢাকা, ২৯ জুলাই, ২০১৮: পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মশিউর রহমান রাঙ্গা বলেছেন,“বর্জ্য ব্যবস্থাপনাকে শিল্পে বদলে দেয়া সম্ভব, দরকার জড়িতদের জীবনমান উন্নয়ন।”

Image may contain: 9 people, people smiling
আজ রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে বর্জ্য ব্যবস্থাপনার সাথে জড়িত বঞ্চিত ও দরিদ্র জনগোষ্ঠীর জীবনমান ও আর্থসামাজিক উন্নয়নের লক্ষ্যে প্র্যাকটিক্যাল এ্যাকশন আয়োজিত এক কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী এ কথা বলেন।
প্রতিমন্ত্রী সামাজিক দায়বদ্ধতার অংশ হিসেবে বিভিন্ন বেসরকারি প্রতিষ্ঠানকে এ কাজে অর্থ ব্যয় করার আহ্বান জানান।
কর্মশালায় বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় সংসদ সদস্য শিরিন আখতার, বাংলাদেশে ইরোপীয় ইউনিয়নের গভর্ননেন্স প্রধান অড্রে মেইলট এবং প্র্যাকটিক্যাল এ্যাকশন বাংলাদেশের দেশীয় প্রধান হাসিন জাহান। 

Image may contain: 1 person, standing
কর্মশালায় বক্তারা এ খাতে পৌরসভা ও সিটি কর্পোরেশনগুলোর পর্যাপ্ত বাজেট বরাদ্দ, বর্জ্য-পেশাজীবীদের অংশগ্রহণে কার্যকর বাণিজ্যিক মডেল তৈরি, নতুন ব্যবসায়িক সুযোগ সৃষ্টি, সমবায় প্রতিষ্ঠা এবং নতুন প্রযুক্তি চালু করার উপর গুরুত্ব দেন।
শিরিন আখতার বলেন, “বাংলাদেশে প্রতিদিন উৎপাদিত বিপুল পরিমান বর্জ্যকে সম্পদে রূপান্তর করার মাধ্যমে জাতীয় অর্থনীতিতে অবদান রাখা সম্ভব।” 


এজন্য তিনি সামাজিক ভাবে অবহেলিত এ জনবলের দক্ষতা উন্নয়নের পাশাপাশি তাদের মজুরি ও শ্রমাধিকার প্রতিষ্ঠায় সুশীল সমাজকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

Image may contain: 3 people, selfie
তিনি বলেন, বর্তমানে বাংলাদেশে প্রায় ৬০ লাখ লোক বর্জ্য ব্যাবস্থাপনার বিভিন্ন পর্যায়ের সাথে জড়িত। আমাদের শহর ও পরিবেশ সুন্দর রাখতে নিরলস সেবা দিয়ে যাচ্ছেন তারা। কিন্তু এদের জীবনমান এখনও অনুন্নত। এদের ৯০ শতাংশের নিজস্ব কোনো বাসযোগ্য জমি নেই। প্রযুাক্ত ও দক্ষতার অভাবে প্রায়শই এরা দুর্ঘটনার শিকার হন, এমনকি মৃত্যু পর্যন্ত ঘটে। ৩৬ শতাংশ লোক সারা বছর বিভিন্ন রোগে ভোগেন। শিক্ষার আলো থেকেও এরা বঞ্চিত। দারিদ্র্য ও মূলধারার মানুষের বৈষম্যের শিকার হয়ে শতকরা ৯০ ভাগ শিশু স্কুল থেকে ঝড়ে পড়ে। তারা সামাজিকভাবে এতটাই অবহেলিত যে, ৬০ শতাংশ লোক এখনও কোনো চায়ের বা খাবারের দোকানে প্রবেশ করতে পারে না।


ইউরোপীয় ইউনিয়নের অর্থায়নে, কর্মজীবী নারী ও মিউনিসিপাল এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ-এর সহযোগিতায় প্র্যাকটিক্যাল এ্যাকশন আগামী তিন বছর বাগেরহাট, বরগুনা, ফরিদপুর ও গাজীপুরে বর্জ্য ব্যবস্থাপনার সাথে জড়িতদের জীবনমান উন্নয়নে কাজ করবে।

Comments are closed.







পাঠক

Flag Counter



Developed By : ICT SYLHET

Developer : Ashraful Islam

Developer Email : programmerashraful@gmail.com

Developer Phone : +8801737963893

Developer Skype : ashraful.islam625

error: Content is protected !!