আপডেট ৪৫ min আগে ঢাকা, ২৩শে অক্টোবর, ২০১৮ ইং, ৮ই কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ১৩ই সফর, ১৪৪০ হিজরী

Breaking News
{"effect":"fade","fontstyle":"normal","autoplay":"true","timer":4000}

প্রচ্ছদ আইন আদালত

Share Button

শ্যাম্পুর বোতলে ক্যামেরা, ৩৪ নারীর স্নানের দৃশ্য ধারণ!

| ১৬:৫৫, আগস্ট ৯, ২০১৮
অনলাইন ডেস্ক ০৯ আগস্ট ২০১৮,

নিজের গেস্টহাউসে আসা নারীদের স্নানঘরের দৃশ্য গোপন ক্যামেরায় ধারণ করতেন তিনি। এ জন্য শ্যাম্পুর বোতলে ক্যামেরা লাগিয়েছিলেন নিউজিল্যান্ডের এই নাগরিক। শেষে পুলিশের হাতে ধরা পড়েন তিনি। এবার এই ব্যক্তি আদালতে দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন।

বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, নিউজিল্যান্ডের নর্থ আইল্যান্ডের হকস বে এলাকায় থাকতেন অভিযুক্ত ব্যক্তি। স্ত্রীর সুরক্ষার জন্য দোষী ব্যক্তির নাম প্রকাশ করেনি কর্তৃপক্ষ। তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ, ২০১৭ সালের ডিসেম্বর থেকে ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারি মাস পর্যন্ত গোপনে ৩৪ নারীর ২১৯টি ভিডিও চিত্র ধারণ করেন তিনি। গোপন ক্যামেরায় ধারণ করা এসব ভিডিও চিত্র একটি পর্নো সাইটে আপলোড করেছিলেন ওই ব্যক্তি। কিছু ভিডিও চিত্রের ক্ষেত্রে লিখিত বর্ণনাও দেওয়া হয়েছিল।

সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, অপরাধের শিকার নারীদের বেশির ভাগের বয়স ৩০ বছরের নিচে। কিছু কিছু ভিডিও চিত্রে নারীদের মুখও দেখা গেছে। তবে শ্যাম্পুর যে বোতলগুলোতে গোপন ক্যামেরা লাগানো হয়েছিল, সেগুলো বাড়িতে বানানো হয়েছিল নাকি অনলাইনে কেনা হয়েছিল, তা জানা যায়নি।

ঘটনার শিকার নারীরা এক বিবৃতিতে বলেছেন, ওই ব্যক্তির এমন কর্মকাণ্ডে তাঁরা স্তম্ভিত ও ক্ষুব্ধ। গত ফেব্রুয়ারিতে ওই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। গ্রেপ্তার হওয়ার পর তিনি বলেছিলেন, রোমাঞ্চকর কাজ করার আকাঙ্ক্ষা থেকে এমনটি করেছিলেন।

স্থানীয় আদালত সূত্রে জানা গেছে, গেস্টহাউসে থাকা কোনো নারী স্নানঘরে ঢুকলেই একটি রিমোট কন্ট্রোলের মাধ্যমে শ্যাম্পুর বোতলে থাকা ক্যামেরা চালু করতেন ওই ব্যক্তি। পরে সুযোগমতো শ্যাম্পুর সেই বোতল সরিয়ে নিয়ে তিনি ভিডিও চিত্রগুলো কম্পিউটারে রেখে দিতেন।

এই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তারের পর থেকেই নিউজিল্যান্ডের পুলিশ পর্নো সাইটে আপলোড করা ভিডিও চিত্রগুলো মুছে ফেলতে শুরু করে। স্ত্রী শারীরিকভাবে অসুস্থ থাকায় ওই অভিযুক্ত ব্যক্তির পরিচয় প্রকাশ না করার জন্য আরজি জানান তাঁর আইনজীবী।

সরকারপক্ষের আইনজীবীদের দাবি, ওই ব্যক্তির ধারণকৃত গোপন ভিডিও চিত্রগুলো ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়েছে। আগামী অক্টোবরে তাঁর বিরুদ্ধে রায় ঘোষণা করবেন আদালত। ওই ব্যক্তির সর্বোচ্চ ১৪ বছরের কারাদণ্ড হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

Comments are closed.







পাঠক

Flag Counter



Developed By : ICT SYLHET

Developer : Ashraful Islam

Developer Email : programmerashraful@gmail.com

Developer Phone : +8801737963893

Developer Skype : ashraful.islam625

error: Content is protected !!