আপডেট ১৪ ঘন্টা আগে ঢাকা, ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং, ১১ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ১৫ই মুহাররম, ১৪৪০ হিজরী

Breaking News
{"effect":"fade","fontstyle":"normal","autoplay":"true","timer":4000}

প্রচ্ছদ ইউরোপ

Share Button

ভ্যাটিকান ধর্মযাজক পোপ ফ্রান্সিস আয়ারল্যান্ড সফর ঘিরে বিক্ষোভ, যাজকদের অ্যাবিউজের জন্য ব্যথিত ও দুঃখিত

| ১৮:৫৬, আগস্ট ২৫, ২০১৮

ডাবলিন । ২৫ আগস্ট । ২০১৮।

 

 

আয়ারল্যান্ডে খ্রিস্টান ধর্ম পুরুষ পোপ ফ্রান্সিসের সফর উপলক্ষে ডাবলিন এবং আয়ারল্যান্ড ছাড়িয়ে সারা বিশ্বের খ্রিস্টান সম্প্রদায় ও বিশ্বমিডিয়ায় তুমুল আলোচনার জন্ম দিয়েছে।

ডাবলিন পৌছে পোপ আয়ারল্যান্ডের প্রেসিডেন্ট মাইকেল ডি হিগিন্স এবং তার স্ত্রী সাবিনা কোয়েইন এর সাথে সাক্ষাত করেন। খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের উদ্দেশ্যে সেন্ট প্যাট্রিক হলে বক্তব্য দেন। এসময় আয়ারল্যান্ডের প্রাইম মিনিস্টার লিও ভারাডকারও বক্তব্য রাখেন।

The Pope puts his hand to his head before he speaks alongside Taoiseach Leo Varadkar at St Patrick's Hall in Dublin today 

পোপ তার বক্তব্যে বলেন, বিগত সময়ে ৩০০ ক্যাথলিক ধর্মযাজক দ্বারা ১০০০ শিশুদের ধর্ষণ, নিপীড়ন, নির্যাতন, অনৈতিক আচরণের জন্য তিনি শেইম এন্ড পেইন হিসেবে উল্লেখ করে বলেন, আমি আয়ারল্যান্ডে মোস্ট ভালনারেবলদের শ্রদ্ধা এবং রিগার্ডস জানাচ্ছি। আমি  এই বিষয়গুলো যথাযথ অ্যাড্রেস করার জন্য ব্যর্থ হতে চাইনা, শিক্ষা, শিশুদের প্রটেকশন করার ক্ষেত্রে।

Pope Francis, centre, is flanked by Irish Prime Minister Leo Varadkar, right, as they arrive to make speeches in Dublin today

এই ধারাবাহিক অনৈতিক কার্যক্রম বিশপস, রিলিজিয়াস পার্সন, প্রিস্ট,-অন্যান্যদের দ্বারা আমাদের শিশুদের সাথে যে অনৈতিক আচরণ করা হয়েছে, তা আমাকে চরমভাবে ব্যথিত, বিপর্যস্ত ও দুঃখিত করে তুলে-আমি সকল ভিক্টমদের সাথে একাত্ম।

Pope Francis meets with Taoiseach Leo Varadkar at Dublin Castle where they spoke about historical sex abuse 

এসময় আইরিশ প্রাইম মিনিস্টার ভ্যারাডকর বলেন, ভ্যাটিকান ক্যাথলিক চার্চের সাথে আয়ারল্যান্ডের নিউ চ্যাপ্টারের সম্পর্কের সূচনা এবং আরো দৃঢ় হবে।

 

লিও ভ্যারাডকর বলেন, আয়ারল্যান্ড কোনভাবে কোন ধরনের অ্যাবিউজ গ্রহণ করেনা।তিনি যাজকদের কেলেংকারির ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান।

Pope Francis meets the President of Ireland Michael D. Higgins and his wife Sabina Coyne at Aras an Uachtarain, the official presidential residence

উল্লেখ্য মঙ্গলবার থেকে শুরু হয়েছে ওয়ার্ল্ড মিটিং অফ ফ্যামিলিস। কিন্তু এর বাইরেই চলছে বিক্ষোভ। বিশেষ করে যুক্তরাষ্ট্রের পেনসিলভ্যানিয়ায় ক্যাথলিক চার্চে যৌন নির্যাতনের অভিযোগ প্রকাশ পাওয়ার পর ডাবলিনেও পড়েছে এর প্রভাব।

পোপকে এক নজর দেখতে হাজার হাজার ক্যাথলিক বিভিন্ন জায়গা থেকে জড়ো হয়েছেন ডাবলিনে। তাদের একজন পর্তুগাল থেকে আসা ২০ বছর বয়সী মিলেনা পেরেইরা বলছেন, বিভিন্ন চার্চে যেসব বিতর্কের সৃষ্টি হচ্ছে, পোপ তা মোকাবিলার যথেষ্ট চেষ্টা করছেন। শিগগিরই পুরো ব্যবস্থাটা সংস্কার হবে, সমচিন্তার মানুষদের পোপ উচ্চ পদে নিয়োগ দেবেন। এই পোপ যদি আরো পাঁচ বছর থাকেন, তাহলে আমরা ভিন্ন এক চার্চ দেখতে পাবো।

A protester holds a sign criticising the Catholic Church's handling of institutionalised sex abuse 

১৯৭৯ সালে পোপ জনপল-২ যখন আয়ারল্যান্ডে এসেছিলেন, তখনও দেশটি ছিল ক্যাথলিকদের বেশ শক্ত ঘাঁটি। প্রায় ১৫ লাখ মানুষ জড়ো হয়েছিলেন ফিনিক্স পার্কে। তখন পোপের উপস্থিতিতে কোনো প্রতিবাদ করাকে অপবিত্র বলে ধরে নেয়া হতো। কিন্তু এখন অবস্থা ভিন্ন। ডাবলিন সিটি মেয়র ম্যানিক্স ফ্লিন নিজেই শহরের বিনোদন এলাকা টেম্পল বারে একটি আর্ট ইনস্টলেশন স্থাপন করেছেন। সেখানে ১৯টি কাঠের বোর্ডে যাজকদের হাতে ধর্ষণ হওয়া শিশুদের কথা লেখা আছে। ফ্লিন নিজেও এই শিশুদের একজন। ১১ বছর বয়সে তাকে ধর্ষণ করা হয়। তিনি বলেন, আমাদের প্রার্থনা বা সমবেদনার প্রয়োজন নেই। এসব মানুষকে গ্রেপ্তার ও আদালতে হাজির করতে হবে।

People queuing on Gardiner Street, Dublin, on Saturday as they wait to attend the papal mass at St Mary's Pro-Cathedral
আয়ারল্যান্ডে ২০০৫ থেকে ২০১১ সালের মধ্যে চার্চে যাওয়া ক্যাথলিকদের সংখ্যা কমে যায় ২০ শতাংশ।  একসময়ের ক্যাথলিকদের ঘাঁটি এখন আর আগের মতো নেই। Pope Francis speaking in St Patricks Hall in Dublin Castle on Saturday where he confronted the issue of Catholic sex abuse 

Comments are closed.







পাঠক

Flag Counter



Developed By : ICT SYLHET

Developer : Ashraful Islam

Developer Email : programmerashraful@gmail.com

Developer Phone : +8801737963893

Developer Skype : ashraful.islam625

error: Content is protected !!