আপডেট ২ ঘন্টা আগে ঢাকা, ২০শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং, ৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ১০ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪০ হিজরী

Breaking News
{"effect":"fade","fontstyle":"normal","autoplay":"true","timer":4000}

প্রচ্ছদ লিড নিউজ

Share Button

নিউ ইয়র্কে ডঃ মোমেন অসুস্থ্যঃঅস্রোপাচার হয়েছে

| ১২:৪৭, সেপ্টেম্বর ৯, ২০১৮

নিউ ইয়র্ক ।

 

৭২ বছরের জীবনে এই প্রথম হাসপাতালে রাত কাটালেন জাতিসংঘে বাংলাদেশেল সাবেক স্থায়ী প্রতিনিধি ও বঙ্গবন্ধু পরিষদের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির প্রেসিডেন্ট ড. এ কে এ মোমেন। ‘ইউরিনাল স্টোন’ অপসারণের জন্যে ৬ সেপ্টেম্বর নিউজার্সির হ্যাকেনসেক হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ড. মোমেন। ভর্তির পরই সেই স্টোন অপসারণের প্রাথমিক একটি অস্ত্রোপচার করা হয়। এরপর বিশেষ চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, ১৩ সেপ্টেম্বর পরিপূর্ণ লেজার অস্ত্রোপচার করা হবে। সে সময়েই সর্বাধুনিক প্রযুক্তির মাধ্যমে তার স্টোনটি গুড়িয়ে শরীর থেকে ফেলে দেয়া হবে।

 

হাসপাতাল বেড থেকে শুক্রবার রাতে এ সংবাদদাতাকে এসব তথ্য জানান ড. মোমেনের ঘনিষ্ঠজন এবং যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের আন্তর্জাতিক সম্পাদক দেওয়ান বজলু। বজলু জানান, ৭২ বছর বয়েসি মানুষটি মোটেও ভেঙ্গে পড়েননি।

এ সময় টেলিফোনে ড. মোমেন এ সংবাদদাতাকে বলেন, কানাডার টরন্টোতে ১ ও ২ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত ‘বিশ্ব সিলেট সম্মেলন’-এ অংশগ্রহণের সময়েই অসুস্থ হয়ে পড়েছিলাম। টরন্টোর হাসপাতালে দিনভর পরীক্ষার পর সামান্য সুস্থ হলেই নিউইয়র্কে ফিরেছি। এখানকার খ্যাতনামা ইউরোলজিস্ট ড. মোতাহার আহমেদের পরামর্শে ‘ইউরিনাল স্টোন’ অপসারণের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। ড. মোমেন উল্লেখ করেন, আমার চিকিৎসা টিমের সদস্যগণের মধ্যে আরো দুই বাংলাদেশী চিকিৎসক রয়েছেন। তারা হলেন ড. সোহেল আহমেদ এবং ওমর হাসান। এই ৩ জনের মধ্যে দু’জনই সিলেটি।’

 

যুক্তরাষ্ট্রের উত্তরাঞ্চলীয় রাজ্যগুলোর মধ্যে এটি হচ্ছে অনতম সেরা একটি হাসপাতাল। ড. মোমেন বলেন, ৮ সেপ্টেম্বর শনিবার রাতে জাতিসংঘ মহাসচিবের সাথে ডিনার পার্টি ছিল। সেটি বাতিল করেছি। ঢাকায় ফেরার সময়ও পিছিয়ে যাচ্ছে।

 

এ সময় ড. মোমেন উল্লেখ করেন, আমার বয়স এখন ৭২ বছর। ৩৬ বছরের মত যুক্তরাষ্ট্রে ছিলাম। সৌদি আরবেও ছিলাম কিছুদিন। জীবনে কখনোই হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়নি। ঘনঘন চিকিৎিসকের কাছেও যাইনি। এটিই প্রথম ঘটনা হাসপাতালে রাত কাটানোর।
‘বাংলাদেশে ফিরেই সিলেটে গিয়ে নির্বাচনী প্রচারণায় নামতে হবে। সিলেট-১ থেকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন দেয়ার কথা। তবে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত দেবেন বঙ্গবন্ধু কন্যা দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনা। তাই, ফেরার আগেই সবকিছু চেকআপ করার একটি সুযোগ পেয়ে পরমকরুণাময়ের শোকরানা আদায় করছি’-বলেন ড. মোমেন।

 

এদিকে, ড. এ কে এ মোমেনের দ্রুত আরোগ্য কামনায় প্রবাসীদের দোয়া চেয়েছেন যুক্তরাষ্ট্র বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের সভাপতি ড. খন্দকার মনসুর এবং সেক্রেটারি মো. আব্দুল কাদের দিয়া।

Comments are closed.







পাঠক

Flag Counter



Developed By : ICT SYLHET

Developer : Ashraful Islam

Developer Email : programmerashraful@gmail.com

Developer Phone : +8801737963893

Developer Skype : ashraful.islam625

error: Content is protected !!