আপডেট ১ ঘন্টা আগে ঢাকা, ২০শে অক্টোবর, ২০১৮ ইং, ৫ই কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ৯ই সফর, ১৪৪০ হিজরী

Breaking News
{"effect":"fade","fontstyle":"normal","autoplay":"true","timer":4000}

প্রচ্ছদ জাতীয়

Share Button

এবার মুখ খুললেন নারী সাংবাদিকেরা

| ২০:১৮, অক্টোবর ৭, ২০১৮

অনলাইন ডেস্ক-সাধারণ মানুষ বা তারকাদের যৌন হেনস্তার খবর জানান সাংবাদিকেরা। নিজেদের যৌন হেনস্তার অভিজ্ঞতা জানাতে এবার তাঁরাই মুখ খুলছেন। ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় বেশ কয়েকজন নারী সাংবাদিক যৌন হেনস্তার অভিযোগ তুলেছেন। অভিযোগের তির বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের হর্তাকর্তাদের বিরুদ্ধে।

আল জাজিরার খবরে বলা হয়েছে, ভারতের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোতে #মিটু আন্দোলন নতুন করে শুরু হয়েছে। বিখ্যাত সাংবাদিক, লেখক ও সম্পাদকেরা এবার মুখ খুলতে শুরু করেছেন। তাঁরা বলছেন, কর্মক্ষেত্রে বিভিন্ন সময় প্রতিষ্ঠিত ব্যক্তিদের কাছে যৌন হেনস্তার শিকার হতে হয়েছে তাঁদের।

সম্প্রতি সাংবাদিক সন্ধ্যা মেনন এক টুইটবার্তায় নিজের যৌন হয়রানির অভিজ্ঞতার কথা তুলে ধরেছেন। তিনি দুজন জ্যেষ্ঠ সম্পাদকের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন। তাঁরা হলেন কেআর শ্রীনিবাস ও গৌতম অধিকারী। অন্যদিকে গৌতম অধিকারীর বিরুদ্ধে অভিযোগ এনেছেন সোনোরা ঝা নামের আরেক নারী। একসময় তিনি টাইমস অব ইন্ডিয়ায় কর্মরত ছিলেন। বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রের সিয়াটল ইউনিভার্সিটির শিক্ষক। সোনোরার অভিযোগ, ১৯৯৫ সালে গৌতম অধিকারী তাঁকে যৌন হেনস্তা করেন।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ‘দ্য ওয়্যার’ লিখেছে, গত বৃহস্পতিবার কৌতুক অভিনেতা ও ইউটিউবার উৎসব চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে যৌন হেনস্তার অভিযোগ তোলেন এক নারী। অন্যদিকে সাংবাদিক সন্ধ্যা মেনন টুইটার বার্তায় অভিযোগ করে বলেন, হায়দরাবাদে টাইমস অব ইন্ডিয়ার আবাসিক সম্পাদক কে আর শ্রীনিবাস ২০০৮ সালে তাঁকে যৌন হয়রানি করেছিলেন। ওই সময় তাঁরা দুজনই বেঙ্গালুরু মিরর নামের সংবাদমাধ্যমে কাজ করতেন। সন্ধ্যার অভিযোগ, বাড়িতে নামিয়ে দেওয়ার কথা বলে তাঁর শরীরে অযাচিত স্পর্শ করেছিলেন শ্রীনিবাস। ওই সময় তিনি প্রতিবাদ করেছিলেন। পরে এ নিয়ে অফিসের মানবসম্পদ বিভাগে অভিযোগ করেও ফল হয়নি।

সোনোরা ঝা আল জাজিরাকে বলেছেন, ঘটনার সময় গৌতম অধিকারী টাইমস অব ইন্ডিয়ার একজন কর্তাব্যক্তি ছিলেন। বেঙ্গালুরু অফিস পরিদর্শনের সময় সোনোরাকে তিনি হোটেলকক্ষে যাওয়ার প্রস্তাব দিয়েছিলেন। ওই সময় তাঁকে জোর করে চুমু দেওয়ার চেষ্টা করেছিলেন গৌতম। পরে সেখান থেকে পালিয়ে বাঁচেন সোনোরা। তবে নিজের শিশুর কথা ভেবে আইনি পদক্ষেপের দিকে এগোননি তিনি।

এ ছাড়া হিন্দুস্তান টাইমসের নয়াদিল্লি অফিসের সহযোগী সম্পাদক মনোজ রামচন্দ্রন ও সম্পাদক প্রশান্ত ঝার বিরুদ্ধেও যৌন হেনস্তার অভিযোগ উঠেছে।

‘#মিটু’ আন্দোলনে এরই মধ্যে টালমাটাল বলিউড। অভিনেত্রী তনুশ্রী দত্তের অভিযোগের পর এ আন্দোলনের পালে হাওয়া লাগে। একের পর এক যৌন হয়রানির অভিযোগ উঠছে ভারতের প্রভাবশালী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে। বলিউডের শক্তিমান অভিনেতা নানা পাটেকারের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ এনেছেন তনুশ্রী। এরই মধ্যে মামলাও করেছেন তিনি। আবার গতকালই ভারতের অন্যতম প্রভাবশালী লেখক চেতন ভগতের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ তোলেন এক তরুণী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *







পাঠক

Flag Counter



Developed By : ICT SYLHET

Developer : Ashraful Islam

Developer Email : programmerashraful@gmail.com

Developer Phone : +8801737963893

Developer Skype : ashraful.islam625

error: Content is protected !!