আপডেট ৪ ঘন্টা আগে ঢাকা, ১৯শে জুন, ২০১৯ ইং, ৫ই আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৫ই শাওয়াল, ১৪৪০ হিজরী

Breaking News
{"effect":"fade","fontstyle":"normal","autoplay":"true","timer":4000}

প্রচ্ছদ ইউরোপ

Share Button

পর্তুগালের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বাংলাদেশ কমিউনিটির অব পোর্তোর বৈঠক

| ২২:২৪, জানুয়ারি ২৭, ২০১৯
রনি মোহাম্মদ । পর্তুগাল থেকে। পর্তুগালের বন্দর নগরী ও বানিজ্যিক রাজধানী পোর্তোয় পর্তুগালের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আগুস্তো সান্তোস সিলভার সাথে পর্তুগালে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মো. রুহুল আলম সিদ্দিকীর উপস্থিতিতে বৈঠক করেছে বাংলাদেশ কমিউনিটি অব পোর্তোর নেতৃবৃন্দ। শনিবার রাতে পোর্তোর স্থানীয় পোর্তোগান্ধি রেস্টুরেন্টে বাংলাদেশ কমিউনিটি অব পোর্তোর আয়োজনে বৈঠক ও নৈশভোজ অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় পর্তুগাল-বাংলাদেশের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে আলোচনা হয়েছে।
অনুষ্ঠানে পর্তুগালের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সাথে অংশ নেন পর্তুগালের ক্ষমতাসীন স্যোশালিস্ট পার্টির পোর্তো শাখার সভাপতি সাবেক মন্ত্রী  ম্যানুয়েল পিজারো, পর্তুগিজ সংসদ সদস্য থিয়াগো বারবোজা রিবেইরো, পোর্তো যুব স্যোসালিস্টের সভাপতি হুগো গিলবাইয়া, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা জোয়াও কোয়েলো।
অনুষ্ঠানের শুরুতেই বাংলাদেশ কমিউনিটি অব পোর্তোর সভাপতি শাহ আলম কাজল উপস্থিত সবাইকে অভ্যর্থনা জানান। এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রী, রাষ্ট্রদূত সহ সকল নেতৃবৃন্দকে ফুল দিয়ে বরণ করে নেন বাংলাদেশ কমিউনিটি অব পোর্তোর নেতৃবৃন্দগন।
নৈশভোজের পূর্বে আলোচনায় শাহ আলম কাজল, পর্তুগালের পররাষ্ট্রমন্ত্রী কাছে দিল্লিতে পর্তুগিজ দূতাবাস হওয়ায় নানা ধরণের কনস্যুলার সেবা নিতে যাওয়া বাংলাদেশিদের নানান ধরণের ভোগান্তির সম্মুখীন হতে হয় তুলে ধরে বাংলাদেশে পর্তুগালের স্থায়ী দূতাবাস স্থাপনের দাবি জানান। এছাড়াও পর্তুগাল ও বাংলাদেশের মধ্যকার বিভিন্ন বাণিজ্যিক সম্ভাবনার কথা ও বাংলাদেশ থেকে কৃষিসহ বিভিন্ন পেশায় দক্ষ শ্রমিক নিতে আহ্বান জানান তিনি।
বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত রুহুল আলম সিদ্দিকী বলেন, ‘আমাদের সম্পর্ক অনেক পুরনো প্রায় ৫০২ বছরের। আমাদের এবং পর্তুগিজদের মধ্যে খাবার এবং ভাষায় অনেক মিল রয়েছে। বাংলাদেশে দূতাবাস না থাকায় বাংলাদেশীরা অনেক সমস্যায় পড়ছেন যা আমি নিজেও এটার ভুক্তভোগী। বাংলাদেশে পর্তুগালের স্থায়ী দূতাবাসের গুরুত্ব তুলে ধরে তিনি পররাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে বিষয়টি বিবেচনা করার আহবান জানান। ট্যুরিজম, টেক্সটাইল, কনস্ট্রাকশন খাতে পর্তুগালের উন্নয়নের কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, এই খাতগুলোতে পর্তুগাল বাংলাদেশের সহযোগী হতে পারে। পর্তুগালের ব্যবসায়ীরা বাংলাদেশে যাচ্ছেন আগের চেয়ে প্রায় তিনগুন বেশী যাহা দুই দেশে পারস্পরিক বাণিজ্যের প্রসারের একটি উদহারণ।
পররাষ্ট্রমন্ত্রী আগুস্তো সান্তোস সিলভা বলেন, ‘বর্তমানে ৭৮ দেশে আমাদের কনস্যুলার সেবা চালু রয়েছে। বাংলাদেশিরা যে ধরণের সমস্যাগুলোর সম্মুখীন হচ্ছে আমরা তাদের জন্য এ ব্যপারগুলো সমাধানের চেষ্টা করছি। এছাড়াও পর্তুগালে যে সমম্ত বাংলাদেশিরা বসবাস করছেন তাদের জন্য কাজ এবং অভিবাসন সংক্রান্ত বিষয়গুলো আমরা সহজ করার উদ্যোগ নিয়েছি। নতুন দূতাবাস করার ব্যপারে আমাদের সরকারের অভ্যন্তরীণ আলোচনা এবং পর্যালোচনায় আমি আপনাদের দাবিটি তথা বাংলাদেশের নামটি মাথায় রাখবো।
বৈঠকে শেষে উপস্থিত পররাষ্ট্রমন্ত্রী এবং নেতৃবৃন্দকে বিশেষ উপহার ও ক্রেস্ট তুলে দেন বাংলাদেশ কমিউনিটি অব পোর্তোর সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আলীম।

Comments are closed.







পাঠক

Flag Counter



Developed By : ICT SYLHET

Developer : Ashraful Islam

Developer Email : programmerashraful@gmail.com

Developer Phone : +8801737963893

Developer Skype : ashraful.islam625

error: Content is protected !!