আপডেট ১০ ঘন্টা আগে ঢাকা, ২০শে এপ্রিল, ২০১৯ ইং, ৭ই বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৪ই শাবান, ১৪৪০ হিজরী

Breaking News
{"effect":"fade","fontstyle":"normal","autoplay":"true","timer":4000}

প্রচ্ছদ সারাদেশ

Share Button

সমঝোতা ছাড়াই আ’লীগের বিশেষ বর্ধিত সভা সম্পন্ন

| ২৩:২৪, জানুয়ারি ২৯, ২০১৯

এস,এম, আলাউদ্দিন সোহাগ, পাইকগাছা (খুলনা)-পাইকগাছা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়ন চেয়ে আবেদন করেছেন ২০জন প্রার্থী। সোমবার বিকেলে প্রেসক্লাব মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত উপজেলা আওয়ামীলীগের বিশেষ বর্ধিত সভায় চেয়ারম্যান পদে ৫, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৯ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৬জন প্রার্থী আবেদন করেন। চেয়ারম্যান পদে আবেদন করেছেন উপজেলা আ’লীগের আহবায়ক গাজী মোহাম্মদ আলী, সদস্য সদস্য সচিব ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ রশীদুজ্জামান, জেলা আওয়ামীলীগনেতা ও সাবেক সাংসদ পুত্র আলহাজ্ব শেখ মনিরুল ইসলাম, উপজেলা আ’লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান আহবায়ক কমিটির সদস্য আনোয়ার ইকবাল মন্টু ও উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এ্যাডঃ শেখ আবুল কালাম আজাদ। ভাইস চেয়ারম্যান পদে উপজেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি এস,এম, শামছুর রহমান, আওয়ামীলীগনেতা ইকবাল হোসেন খোকন, সুকৃতি মোহন সরকার, শিহাব উদ্দীন ফিরোজ বুলু, সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান কৃষ্ণপদ মন্ডল, উপজেলা তাঁতীলীগের সভাপতি দেবব্রত রায়, পৌর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মিজানুর রহমান, পৌর শ্রমিকলীগের সভাপতি শেখ হারুন-অর-রশিদ হিরু ও স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা আলহাজ্ব মুজিবুর রহমান। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে আবেদন করেছেন, উপজেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মাসুমা বেগম, পৌর সভাপতি শেখ জুলি, উপজেলা যুব মহিলালীগের সভাপতি ময়না বেগম, সাধারণ সম্পাদক ফাতেমাতুজ্জোহরা রূপা, যুবলীগনেত্রী নাজমা কামাল ও লিপিকা ঢালী। উপজেলা আওয়ামীলীগের আহবায়ক গাজী মোহাম্মদ আলীর সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব রশীদুজ্জামানের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন আওয়ামীলীগের জাতীয় কমিটির সদস্য ও সাবেক সংসদ সদস্য আলহাজ্ব এ্যাডঃ শেখ মোঃ নুরুল হক। প্রধান বক্তা ছিলেন, বর্তমান সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আলহাজ্ব আক্তারুজ্জামান বাবু। বিশেষ অতিথি ছিলেন, জেলা আ’লীগের দপ্তর সম্পাদক এ্যাডঃ ফরিদ আহমেদ, জেলা আ’লীগনেতা আলহাজ্ব শেখ মনিরুল ইসলাম, পৌর আ’লীগের আহবায়ক শেখ কামরুল হাসান টিপু, পৌর মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীর, জেলা পরিষদ সদস্য আব্দুল মান্নান গাজী, নাহার আক্তার। বক্তব্য রাখেন, আওয়ামীলীগনেতা আলহাজ্ব আব্দুর রাজ্জাক মলঙ্গী, আনোয়ার ইকবাল মন্টু, ইউপি চেয়ারম্যান কওসার আলী জোয়াদ্দার, আলহাজ্ব আব্দুল মজিদ গোলদার, রিপন কুমার মন্ডল, রুহুল আমিন বিশ্বাস, কে,এম, আরিফুজ্জামান তুহিন, আ’লীগনেতা আলহাজ্ব গোলাম মোস্তফা, যুগোল কিশোর দে, নির্মল মজুমদার, আনন্দ মোহন বিশ্বাস, আলহাজ্ব মুনছুর আলী গাজী, আবুল বাশার বাবুল সরদার, ডাঃ শংকর দেবনাথ, গাজী নজরুল ইসলাম, শেখ বেনজির আহমেদ বাচ্চু, নির্মল অধিকারী, মহাসিন সরদার, প্রভাষক ময়নুল ইসলাম, ভূধর চন্দ্র মন্ডল ও দেবু। সভায় প্রার্থী চূড়ান্ত করার লক্ষে উন্মুক্ত আলোচনায় দলীয় নেতাকর্মীরা ভিন্ন ভিন্ন প্রস্তাব দেয়। অনেকেই ভোটের মাধ্যমে এবং অনেকেই যোগ্যতার ভিত্তিতে প্রার্থী চূড়ান্ত করার প্রস্তাব করেন। তবে কোন সমঝোতা না হওয়ায় আবেদনকারী প্রার্থীদের তালিকা মঙ্গলবার জেলা আওয়ামীলীগের বর্ধিত সভায় উত্থাপন করার সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়। সভায় সাবেক সংসদ সদস্য আলহাজ্ব এ্যাডঃ শেখ মোঃ নুরুল হক বর্তমান সংসদ সদস্যের সকল কাজে সর্বাত্মক সহযোগিতার আশ্বাস দিয়ে বলেন, জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ন্যায় উপজেলা পরিষদ নির্বাচনেও সকল ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে নৌকা প্রতীকের প্রার্থীকে বিজয়ী করতে হবে। সভায় প্রধানবক্তা সংসদ সদস্য আলহাজ্ব আক্তারুজ্জামান বাবু বলেন, নির্বাচনকে ঘিরে দলের মধ্যে কোন বেচা-কেনা চলবে না। সাংগঠনিক নিয়মেই গণতন্ত্র অনুযায়ী দল পরিচালিত হবে। তিনি আরো বলেন, প্রার্থী চূড়ান্ত করার নামে আওয়ামীলীগকে বিভক্ত করা যাবে না। প্রার্থী চুড়ান্ত করার মালিক প্রধানমন্ত্রী। তিনি যাকে মনোনয়ন দিবেন আমরা সবাই মিলে তাকে নির্বাচিত করব।

পাইকগাছার অনির্বাণ লাইব্রেরীর উদ্যোগে শীত বস্ত্র বিতরণ
পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি -পাইকগাছার ঐতিহ্যবাহী অনির্বাণ লাইব্রেরীর উদ্যোগে দুঃস্থ ও অসহায় ব্যক্তিদের মাঝে শীত বস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে। সোমবার বিকালে লাইব্রেরী মিলনায়তনে সমীরণ দে’র সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক প্রভাত দেবনাথের পরিচালনায় বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ইব্রাহিম। বিশেষ অতিথি ছিলেন, ওসি মোঃ এমদাদুল হক শেখ, উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা সরদার আলী আহসান, পাইকগাছা প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি মোঃ আব্দুল আজিজ। বক্তব্য রাখেন, প্রাক্তন অধ্যাপক কালীদাস চন্দ্র চন্দ, অধ্যাপক বিশ্বনাথ ভট্টাচার্য্য, প্রাক্তন প্রধান শিক্ষক গণেশ চন্দ্র ভট্টাচার্য্য, হরিঢালী ফাঁড়ি পুলিশের ইনচার্জ প্রিয়তোষ কুমার সরকার, ডাঃ বাসুদেব কুমার রায়, মানিক চন্দ্র ভদ্র ও ইউপি সদস্য কুমরেশ চন্দ্র দে। শীতবস্ত্র প্রদান করে সহায়তা করেন ঢাকার হাসান টিপু ও জি,এম, পেট্টোকম বাংলাদেশ লিমিটেডের পার্থ সারথী রায় চৌধুরী। অনুরূভাবে পুলিশ সেবা সপ্তাহ উপলক্ষে সকালে থানা চত্ত্বরে ওসি মোঃ এমদাদুল হক শেখের সভাপতিত্বে দুঃস্থদের মাঝে কম্বল বিতরণ করা হয়। বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ইব্রাহিম।


খুলনার সংরক্ষিত নারী আসনে এমপি হতে চান শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তান সুরাইয়া বানু ডলি
এস,এম,আলাউদ্দিন সোহাগ,পাইকগাছা (খুলনা)-খুলনার সংরক্ষিত নারী আসনে আওয়ামী লীগের এমপি হতে চান পাইকগাছা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাক্তন প্রধান শিক্ষক ও শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের কৃতি সন্তান সুরাইয়া বানু ডলি। তিনি ১৮ জানুয়ারী বিকাল ৪টার দিকে আওয়ামী লীগের ধানমন্ডীস্থ দলীয় কার্যালয়ে মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন। উল্লেখ্য, সুরাইয়া বানু ডলি পেশায় একজন শিক্ষক ছিলেন। তিনি দীর্ঘদিন উপজেলা সদরের দু’টি সরকারি বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব পালন করেছেন। শিক্ষকতা করার কারণে কোন রাজনৈতিক কর্মকান্ডে সরাসরি সংশ্লিষ্ট ছিলেন না। তবে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে ধারণ করে তার কর্মকান্ড পরিচালিত করেছেন। গত ২/৩ বছর তিনি সরকারি চাকুরি থেকে অবসর গ্রহণ করেছেন। এলাকার এমন কোন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন নাই যেখানে তার অবস্থান নাই। প্রায় প্রতিটি সংগঠনের সঙ্গে তিনি সংশ্লিষ্ট রয়েছেন। শুধু শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তান নন, তিনি একজন মুক্তিযোদ্ধা হিসাবেও দাবী করে থাকেন। তার পিতা শহীদ শেখ মাহাতাব উদ্দীন মনি। তিনি মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক ও প্রশিক্ষক ছিলেন। ১৯৭১ সালের ২৮ জুলাই তিনি শহীদ হন। ডলির বড় ভাই শেখ শাহাদাৎ হোসেন বাচ্চু যুদ্ধকালীন কমান্ডার ও উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার ছিলেন। তার ছোট চাচা শেখ বেলাল উদ্দীন বিলু ছিলেন, যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা ও উপজেলা আওয়ামী লীগের আমৃত্যু সভাপতি ছিলেন। সুরাইয়া বানু ডলি এলাকায় সবার কাছে ডলি আপা হিসাবে পরিচিত। তিনি শিব্সা সাহিত্য অঙ্গনের সভাপতি, বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদ এবং মুক্তিযুদ্ধের শহীদ স্মৃতি পাঠাগারের সহ-সভাপতি দায়িত্বে রয়েছেন। তিনি তার সামাজিক ও সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডের মাধ্যমে বর্তমান সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা তুলে ধরে থাকেন। তিনি সরকারের সাফল্য ও অর্জন নিয়ে কয়েকটি প্রবন্ধও লিখেছেন। নির্বাচিত হয়ে তিনি নারী ও মুক্তিযোদ্ধাদের কল্যাণে কাজ করতে চান বলে জানান। সুরাইয়া বানু ডলি বলেন, অবহেলিত সুন্দরবন সংলগ্ন এ এলাকা থেকে ইতোপূর্বে কোন নারী মনোনয়ন প্রত্যাশা করেনি। আমি ব্যক্তিগত সরকারি চাকুরি করার কারণে সরাসরি রাজনীতি করতে পারিনি। তবে আমি আওয়ামী লীগ ও মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তান। সে অনুযায়ী জন্মসূত্রে আমি আওয়ামী লীগের। আমার বিশ্বাস নারীর ক্ষমতায়নে বিশ্বাসী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আওয়ামী লীগ ও মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তান হিসাবে আমার বিষয়টি গুরুত্বের সাথে বিবেচনা করে আমার প্রতি সদয় হবেন এবং আমাকে দলীয় মনোনয়ন দিয়ে সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি হিসাবে নির্বাচিত করে নারী ও মুক্তিযোদ্ধাদের কল্যাণে কাজ করার সুযোগ দিবেন।

Comments are closed.







পাঠক

Flag Counter



Developed By : ICT SYLHET

Developer : Ashraful Islam

Developer Email : programmerashraful@gmail.com

Developer Phone : +8801737963893

Developer Skype : ashraful.islam625

error: Content is protected !!