চুক্তি ছাড়া ব্রেক্সিট হলে হলিডে মেকারদের শুক্রবারই পাসপোর্ট রিনিউ এর ডেডলাইনঃহুইচ

প্রকাশিত: ২:৪৮ অপরাহ্ণ, মার্চ ৭, ২০১৯ | আপডেট: ৮:৩৯:অপরাহ্ণ, মার্চ ৭, ২০১৯

লন্ডন । ব্রেক্সিট ডেস্ক । কোন রকম চুক্তি ছাড়া মার্চের ২৯ তারিখ ব্রেক্সিট হয়ে গেলে লাখো হলিডে মেকার ইউরোপিয় ইউনিয়নভুক্ত দেশ সমূহে প্রবেশের ক্ষেত্রে বাধার সম্মুখিন হতে পারেন বলে প্রভাবশালি সংস্থা হুইচ মনে করে।

হুইচের মতে, চুক্তি ছাড়া ব্রেক্সিট হলে শুক্রবারই হচ্ছে হলিডে ওয়ালাদের জন্য পাসপোর্ট রিনিউ এর শেষ তারিখ।

সাধারণতঃ বর্তমান নিয়মানুসারে পাসপোর্টের মেয়াদ থাকা লাগে ৬ মাসের ভিসা অবধি ভ্যালিড সময় লাগে হলিডের ক্ষেত্রে, সানজেনভুক্ত দেশসমূহে ছুটি কাটানোর জন্য।

 

কিন্তু এই মুহুর্তে ব্রিটিশদের লাগতে পারে, ছুটি কাটানোর জন্য বর্তমান সময় থেকে নয়মাস সময় থাকতে হবে পাসপোর্টে, তাদের বৈধ ট্র্যাভেল ডকুম্যান্টের জন্য।

 

হুইচ তাদের মতামত ট্র্যাভেলার্সদের জন্য এমনভাবে সতর্কতা দিচ্ছে।

 

কিন্তু সরকারি সূত্র বলছে, চুক্তি ছাড়া ব্রেক্সিট হলে এই মুহুর্তে ছয় মাসের বৈধ ট্র্যাভেল ডকুম্যান্টস পাসপোর্টের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য নাও হতে পারে বরং ১৫ মাসের মতো কাউন্ট হবে, যদি না চুক্তি ছাড়া ব্রেক্সিট হয়, অর্থাৎ ১৫ মাস সময় পাসপোর্টে বৈধতা থাকতে হবে।

 

হুইচের মতে, এই মুহুর্তে ৩.৫মিলিয়ন ব্রিটিশ পাসপোর্টধারি এই রকম অবস্থার জন্য পাসপোর্টে সময় হাতে নেই। তারা বরং ইইউ দেশ সমূহে প্রবেশের ক্ষেত্রে বাধার সম্মুখীন হবে বৈধ ডকুম্যান্টসের অভাবে।

 

হুইচের মতে, শুক্রবার হচ্ছে ব্রেক্সিট হওয়ার ক্ষেত্রে তিন সপ্তাহ বাকি থাকে।

 

হোম অফিসের মতে, চুক্তি ছাড়া ব্রেক্সিট হলে ইইউ দেশসমূহে ভ্রমণের ক্ষেত্রে নতুন নিয়ম এপ্লাই হতে পারে, সেক্ষেত্রে জনগনকে পাসপোর্ট রিনিউ করে ট্র্যাভেল করার পরিকল্পনা করতে হতে পারে।আর যদি পাসপোর্ট নতুন নিয়মের আওতায় না পড়ে, তাহলে নতুন পাসপোর্টের জন্য আবেদন করতে হতে পারে।

 

সেজন্য সরকারের অনলাইন পাসপোর্ট চেকার সার্ভিসhttps://www.passport.service.gov.uk/check-a-passport থেকে বিস্তারিত অবহিত হওয়ার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।