‘বাংলাদেশ, ভারত এই অঞ্চলে বড় শক্তিতে পরিণত হবে’

প্রকাশিত: ১:৪০ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ১৪, ২০১৯ | আপডেট: ১:৪০:পূর্বাহ্ণ, মার্চ ১৪, ২০১৯

বাংলাদেশ ও ভারত আগামী ১০ বছরে এই অঞ্চলে গুরুত্বপূর্ণ অর্থনৈতিক শক্তিতে পরিণত হবে বলে মনে করেন একজন ভারতীয় বিশেষজ্ঞ। তার মতে, দুই দেশের সরকারের মধ্যে যে বলিষ্ঠ সম্পর্ক রয়েছে তা অন্যদের মধ্যেও ছড়িয়ে দিতে হবে। দুই দেশে  বিশেষজ্ঞ, চিন্তাবিদ, শিল্পী ও সংস্কৃতিসেবী, ব্যবসায়ী, ছাত্র তথা সাধারণ মানুষের মধ্যে এমন দৃঢ় বন্ধন দরকার বলে ঐ বিশেষজ্ঞ মনে করেন। নয়া দিল্লির স্বনামখ্যাত গবেষণা প্রতিষ্ঠান অবজারভার রিসার্চ ফাউন্ডেশনের (ওআরএফ) প্রেসিডেন্ট ড. সমীর সরণ , গতকাল ঢাকায় এক লেকচার অনুষ্ঠানে এই মন্তব্য করেন।

বেসরকারি প্রতিষ্ঠান সেন্টার ফর গভর্নেন্স স্টাডিজ (সিজিএস) ইস্কাটনের বিআইআইএসএস অডিটোরিয়ামে ভারত, বাংলাদেশ ও ইন্দো প্যাসিফিক শীর্ষক  লেকচার-এর আয়োজন করে। সিজিএস-এর চেয়ারপারসন প্রফেসর আতাউর রহমান  অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন। মডারেটর ছিলেন সিজিএস-এর নির্বাহী পরিচালক টিভি উপস্থাপক জিল্লুর রহমান। ওআরএফ-এর প্রধান ড. সমীর সরন তার বক্তব্যে বলেন, ঢাকা ও নয়াদিল্লি গত এক দশকে যে গতিতে ভালো বোঝাপড়ার মাধ্যমে এগিয়ে যাচ্ছে সেই তালে অন্য খাত  এগুচ্ছে না।দুই দেশের মানুষের মধ্যে ঘনিষ্ঠ বন্ধন দরকার।

রবীন্দ্রনাথের পর সীমান্তের উভয় পাশে আর কোনো ‘আইকন’ সৃষ্টি হয়নি। তাই সাহিত্য, সংস্কৃতি, চিত্রকলার ক্ষেত্রে নিবিড় সম্পর্ক স্থাপন জরুরি। ভারত ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে বাংলাদেশ ও ভারত হাতে হাত ধরে ‘বড় ফ্যাক্টর’ হয়ে উঠছে। তাই সম্ভাবনা ও চ্যালেঞ্জগুলো মাথায় রেখে দুই দেশকে  কর্মপরিকল্পনা নিয়ে এগুতে হবে।