আপডেট ৪ ঘন্টা আগে ঢাকা, ১৯শে জুন, ২০১৯ ইং, ৫ই আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৫ই শাওয়াল, ১৪৪০ হিজরী

Breaking News
{"effect":"fade","fontstyle":"normal","autoplay":"true","timer":4000}

প্রচ্ছদ ইউরোপ

Share Button

দাওয়াত দেয়া হয়নি বলে ইতালিতে ইফতার মাহফিল বন্ধ!

| ০০:০৭, মে ২৯, ২০১৯

দাওয়াত না দেয়ায় বাংলাদেশি প্রবাসীদের আয়োজিত ইফতার পার্টি বন্ধ করে দিয়েছে প্রবাসীদেরই অন্য একটি দল।

গতকাল মঙ্গলবার ইতালির রোমের মন্তেভেরদে এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় ইতালির বাঙালি কমিউনিটিতে নিন্দার ঝড় বইছে। ধর্মীয় অনুষ্ঠান নিয়ে এমন কাণ্ডকে নেক্কারজনক হিসাবে মন্তব্য করছেন কেউ কেউ।

এ নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায়ও কড়া সমালোচনার ঝড় বইছে।

সূত্রের খবর, মন্তেভেরদের স্থানীয় বায়তুন নূর জামে মসজিদে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সদরের ইতালি প্রবাসী মো. বাসির ও মইনুল এবং তাদের পরিচিতদের উদ্যোগে এক ইফতার মাহফিল হওয়ার কথা ছিল।

আয়োজনে অতিথিদের মধ্যে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সমিতির নেতা নজরুল ইসলাম বাবু, সাফিজুল হক সাফিজ ও আজাদকে রাখা হয়নি।

অভিযোগ উঠেছে, দাওয়াত না পাওয়া ব্যক্তিবর্গ ইফতার মাহফিল বন্ধের জন্য মসজিদ কমিটি বরাবর লিখিত আবেদন করে।

সেই আবেদনের প্রেক্ষিতে ইফতার মাহফিলের অনুমতি বাতিল করে মসজিদ কমিটি।

এ বিষয়ে আরও অভিযোগ রয়েছে, দাওয়াত না পাওয়াদের পক্ষ থেকে এই ইফতার মাহফিলের বিরুদ্ধে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অপপ্রচার করা হয়েছে।

এ বিষয়ে অনুষ্ঠানের আয়োজক মো. বাছির বলেন, ‘ইফতার মাহফিলের মতো একটি ধর্মীয় আচারে কি করে মানুষ বিরোধিতা করতে পারে এটা আমার বোধগম্য নয়।

একটি অনুষ্ঠানে সবাইকে দাওয়াত করা সম্ভব নয় বলে মন্তব্য করেন তিনি।

আরেক আয়োজক মইনুল ইসলাম বলেন, ‘এভাবে হঠাৎ করে ইফতার মাহফিলটি বন্ধ করে দেওয়ায় আমরা আর্থিক ও সামাজিকভাবে অনেক বড় ধরনের ক্ষতির মধ্যে পড়েছি। ’

মাহফিলটি উপলক্ষে সব রকম আয়োজন সম্পন্ন করা হয়েছিল বলে জানান তিনি।

অনুমতি দিয়ে আবার পরে অনুমতি বাতিল করার বিষয়ে বায়তুন নূর মসজিদ কমিটির সভাপতি মনির ভূইয়া বলেন, ‘একটি মৌখিক অভিযোগ ও পরে একই অভিযোগ লিখিতভাবে দিলে মসজিদে যে কোন অনাকাঙ্খিত ঘটনা এড়ানোর জন্য মসজিদ কমিটি এই অনুষ্ঠানের অনুমতি বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।’

কি লেখা ছিল সেই লিখিত অভিযোগে প্রশ্নে তিনি বলেন, ‘সেই অভিযোগপত্রে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সমিতির কয়েকজনকে দাওয়াত না করার অভিযোগ ছিল। এজন্য অনুষ্ঠান বন্ধের আবেদন জানান তারা।’

মসজিদ কমিটির এমন বক্তব্যের পর স্থানীয় প্রবাসীরা বেশ ক্ষুব্দ হয়েছেন।

শুধুমাত্র গুটিকয়েক ব্যক্তিকে দাওয়াত না করায় ইফতারের অনুমতি বাতিল করা কতটুকু যৌক্তিক এ বিষয়ে বিভিন্ন মহলে প্রশ্ন উঠেছে।

Comments are closed.







পাঠক

Flag Counter



Developed By : ICT SYLHET

Developer : Ashraful Islam

Developer Email : programmerashraful@gmail.com

Developer Phone : +8801737963893

Developer Skype : ashraful.islam625

error: Content is protected !!