শর্ত সাপেক্ষে নাগরিকত্ব পাবে রোহিঙ্গারা: মিয়ানমার

প্রকাশিত: ২:৪৭ অপরাহ্ণ, জুলাই ২৮, ২০১৯ | আপডেট: ২:৪৮:অপরাহ্ণ, জুলাই ২৮, ২০১৯

সায়ীদ আলমগীর ও রফিক উদ্দিন বাবুল, উখিয়া থেকে-রোহিঙ্গাদের শর্ত সাপেক্ষে নাগরিকত্ব দিতে রাজি বলে মন্তব্য করেছেন কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে আসা মিয়ানমারের পররাষ্ট্র সচিব মিন্ট থোয়ে। রবিবার বিকালে কক্সবাজারের উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন ও রোহিঙ্গা নেতাদের সঙ্গে একাধিক বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ কথা বলেন তিনি।

কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন ও রোহিঙ্গা নেতাদের সঙ্গে কথা বলতে দুই দিনের সফরে আসে মিয়ানমারের প্রতিনিধিদল। উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্প-৪ এ রোহিঙ্গা নেতাদের সঙ্গে একাধিক বৈঠক করেন তারা।বৈঠক শেষে প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেয়া মিয়ানমারের পররাষ্ট্র সচিব মিন্ট থোয়ে বলেন, আমরা রোহিঙ্গাদের শর্ত সাপেক্ষে নাগরিকত্ব দিতে প্রস্তুত। ১৯৮২ সালের মিয়ানমারের আইন অনুযায়ী প্রত্যেককে নাগরিকত্ব দেয়া হবে। এছাড়াও যারা দাদা, মা ও সন্তান-এই তিনের অবস্থানের প্রমাণ দিতে পারবে তাদের নাগরিকত্ব দেয়া হবে।

 

একইভাবে ন্যাশনাল ভ্যারিফিকেশন কার্ড (এনভিসি) অনুযায়ী কাগজপত্র দেখাতে পারবে তাদেরও নাগরিকত্ব দেয়া হবে।সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি আরও বলেন, উভয় পক্ষের আলোচনার মাধ্যমে প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে। আন্তর্জাতিক সংস্থার প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠকের পাশাপাশি পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয় পর্যায়ে এ সংক্রান্ত বৈঠক হবে ঢাকায়।

 

এদিকে রোহিঙ্গা নেতারা জানান, নাগরিকত্ব ও স্বাধীন চলা-ফেরার নিরাপত্তা প্রদান করলে তারা স্বদেশে ফেরত যাবেন। মা-বোনদের নির্যাতনের সুষ্ঠু বিচারও দাবি করেন তারা।