মক্কা মুকাররামায় সিলেট লেখক ফোরামের সাহিত্য আড্ডা সম্পন্ন

প্রকাশিত: 5:44 AM, August 7, 2019 | আপডেট: 5:44:AM, August 7, 2019

মক্কা মুকাররামায় সিলেট লেখক ফোরামের সাহিত্য আড্ডা সম্পন্ন

সৌদি আরব থেকে নিজস্ব প্রতিবেদক:

বাংলা ভাষা, সাহিত্য ও সংস্কৃতিকে বিশ্ব পরিমন্ডলে আরও বেশি করে প্রচার ও প্রসারের কর্মসূচির অংশ হিসেবে আবারও পবিত্র মক্কা মুকাররামায় সিলেট লেখক ফোরামের সাহিত্য আড্ডা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ৬ আগস্ট মঙ্গলবার বিকেলে পবিত্র মক্কা মুকাররামার একটি অভিজাত হোটেলের কনফারেন্স হলে এ অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়। ফোরামের সাধারন সম্পাদক লেখক সাংবাদিক এডভোকেট জিয়াউর রহিম শাহিনের সভাপতিত্বে ও কোষাধ্যক্ষ কাজী মাওলানা শফিকুল ইসলামের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সাহিত্য আড্ডায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ফোরামের উপদেষ্টা, লন্ডনের টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের কাউন্সিলর ও সাবেক স্পিকার, চার্টার্ট একাউন্টেন্ট মো. আয়াছ মিয়া।

প্রধান আলোচকের বক্তব্য রাখেন ফোরামের আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক এবং লন্ডনের স্যাডওয়েল জামে মসজিদের ইমাম ও খতিব মাওলানা কবি সিরাজুল ইসলাম সা’দ। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন মদীনা ইউনিভার্সিটির স্কলার গবেষক মাওলানা আব্দুল্লাহ আল মামুন। সঙ্গীত পরিবেশন করেন ইউরোপের ইসলামী মিডিয়া ব্যক্তিত্ব ক্বারী মুহিবুর রহমান। বাংলাদেশ থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বক্তব্য রাখেন ও অনুষ্ঠানে আগত সকল অতিথি ও সাহিত্যানুরাগীদের অভিনন্দন জানান ফোরামের সভাপতি রোটারিয়ান কবি নাজমুল ইসলাম মকবুল।

বিপুল সংখ্যক বাংলাদেশী সাহিত্যানুরাগীদের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, সিলেট লেখক ফোরামের উদ্যোগে বিগত পনের বছরে লন্ডন সৌদিআরবসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে অনেকগুলি সাহিত্য আড্ডার সফল আয়োজন সম্পন্ন হয়েছে। বিশ্বের প্রায় প্রতিটি দেশেই সিলেট লেখক ফোরামের উদ্যোগে সাহিত্য আড্ডা আয়োজনের পরিকল্পনা আমাদের রয়েছে। সে লক্ষ্যে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। তারা আরও বলেন, সিলেট লেখক ফোরামের পনের বছরের অর্জন নিয়ে এবং সিলেটের সাহিত্য সাংবাদিকতার ইতিহাস ঐতিহ্য বিষয়ে বিষয়ভিত্তিক লেখার সমাহারে আমরা একটি বিশাল স্মারক প্রকাশের উদ্যোগ নিয়ে কাজ শুরু করে দিয়েছি। এ ব্যাপারে দেশি বিদেশি সকলের সহযোগিতা প্রয়োজন। পাশাপাশি গুণীজনদের তথ্যভিত্তিক গবেষনামুলক লেখা এবং মুল্যবান পরামর্শ আমাদের সামনের অগ্রযাত্রাকে করবে আরও শানিত। সকলের সহযোগিতায় সিলেট লেখক ফোরামের আগামী দিনের অভিযাত্রা হবে আরও দুরন্ত আরও দুর্বার।