কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আবদুল্লাহর ‘খবর নেই’উদ্বিগ্ন মমতা

প্রকাশিত: ৯:৪৮ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ৮, ২০১৯ | আপডেট: ৯:৪৮:পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ৮, ২০১৯

লন্ডন টাইমস ডেস্ক:-

একদিন আগে কাশ্মীরি নেতাদের মুক্তি চেয়েছিলেন। এদিন খোঁজ-খবর নিয়ে জম্মু ও কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা ন্যাশনাল কনফারেন্স নেতা ফারুক আবদুল্লাহর ‘খবর পাননি’। পরে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন তিনি উদ্বিগ্ন।

চেন্নাইয়ে প্রয়াত করুণানিধির স্মরণসভায় গিয়ে মমতা দাবি করেন, ফারুক আবদুল্লাহ কোথায় আছেন সে ব্যাপারে কোনও খবর নেই।

কোনও রাজ্যের ক্ষেত্রে এমন গুরুত্বপূর্ণ একটি সিদ্ধান্ত নিলে সে রাজ্যের বাসিন্দাদের গুরুত্ব দিয়েই পদক্ষেপ নেওয়া উচিত।

সোমবার সংবিধানের ৩৭০ ধারা বিলোপ করে ভারতের অধীনে থাকা জম্মু-কাশ্মীরকে ভেঙে দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল করার ঘোষণা দিয়েছে ক্ষমতাসীন বিজেপি।

রাজ্যসভায় অমিত শাহের এই প্রস্তাবের তীব্র বিরোধিতা করেন তৃণমূল সাংসদরা। অধিবেশন থেকে ওয়াকআউট করেন ডেরেক ও’ব্রায়েন, শুখেন্দু শেখর রায়রা। ফলে বিলের বিপক্ষেও ভোট দেননি দলের সাংসদরা।

মমতা জানান, তিনি একটি ভিডিও দেখেছেন যাতে ন্যাশনাল কনফারেন্স নেতা ফারুক আবদুল্লাকে কাঁদতে দেখা গেছে।

‘আমরা তার অবস্থান সম্পর্কে কিছুই জানি না, আমরা সত্যিই উদ্বিগ্ন। আমাদের এই পরিস্থিতির বিরুদ্ধে লড়াই করতে হবে। আমরা এটা করতে পারি এবং আমরা এটা করব,’ বলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

ফারুক আবদুল্লাহ প্রসঙ্গে মঙ্গলবার সংসদে দাঁড়িয়ে ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ দাবি করেন, তিনি স্বেচ্ছায় বাড়িতে রয়েছেন, তাকে কোনোভাবেই আটক বা গ্রেপ্তার করা হয়নি।