মুসলমানদের ওপর বলপ্রয়োগ না করতে ভারতের প্রতি আহ্বান খামেনির

প্রকাশিত: 5:44 AM, August 22, 2019 | আপডেট: 5:44:AM, August 22, 2019

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ-

কাশ্মীরের স্বায়ত্তশাসন বাতিল নিয়ে সৃষ্ট সংকটের মধ্যেই সীমান্তে ভারত-পাকিস্তান সেনা উত্তেজনা অব্যাহত আছে। বুধবারও যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করে সীমান্তে গুলি চালায় পাকিস্তান। জবাবে ভারতও পাল্টা গুলি চালায়। নয়াদিল্লির অভিযোগ, পরিস্থিতি জটিল করতে কাশ্মীরে জঙ্গি হামলার ছক কষছে ইসলামাবাদ।

থমথমে পরিস্থিতির মধ্যেই বুধবার (২১ আগস্ট) কাশ্মীরের শ্রীনগরে স্থানীয় বাসিন্দারা বিক্ষোভে নামলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। স্বায়ত্তশাসন বাতিলের প্রতিবাদে শুক্রবার জুমার নামাজের পর আবারও বিক্ষোভের ডাক দিয়েছেন স্থানীয় নেতারা।

একজন বলেন, ‘এখানকার পরিস্থিতি ভালো নয়। ছেলেমেয়েদের স্কুলে পাঠানোর মতো পরিবেশ সৃষ্টি হয়নি। আরেকজন বলেন, ধীরে ধীরে টেলিফোন সংযোগ সচল হচ্ছে। পরিস্থিতির উন্নতিও হচ্ছে।’

এর মধ্যেই ভারতের দাবি, কাশ্মীর সীমান্তে ফের যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করে গুলি চালিয়েছে পাকিস্তান। বুধবার বিকেলে রাজৌরির সুন্দারবানি সেক্টরে এ ঘটনা ঘটে। ভারতীয় সেনারাও গুলি চালিয়ে এর পাল্টা জবাব দিয়েছে। ভারতীয় গণমাধ্যমের খবরে আরও দাবি করা হয়, আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের নজর কাড়তে পাকিস্তানি গোয়েন্দারা কাশ্মীরে জঙ্গি হামলার ছক কষছে।

কাশ্মীর নিয়ে উত্তেজনা অবসানে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ফের মধ্যস্থতার প্রস্তাবের মধ্যেই ফ্রান্সের পক্ষ থেকে উত্তেজনা নিরসনে পাকিস্তানকে আহ্বান জানানো হয়েছে। আর উদ্বেগ প্রকাশ করে ইরানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনি আঞ্চলটির মুসলমানদের ওপর বলপ্রয়োগ না করতে ভারতের প্রতি আহ্বান জানান। এছাড়া সংকট সমাধানে ভারতের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন।

কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিলের পরপরই স্বাধীনতাকামী প্রায় তিন শতাধিক রাজনৈতিক নেতা ও কর্মীকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এখনো ধরপাকড় অব্যাহত থাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। কর্তৃপক্ষের এমন পদক্ষেপে পরিস্থিতি আরও জটিল হওয়ার আশঙ্কা করছেন বিশ্লেষকরা।