এনআরসি থেকে বাদ পড়াদের ফেরত নিতে বলা হবে বাংলাদেশকে

প্রকাশিত: 9:04 PM, September 2, 2019 | আপডেট: 9:04:PM, September 2, 2019

আসামের এনআরসি বা নাগরিকপঞ্জি থেকে বাদ পড়া ব্যক্তিদের ফিরিয়ে নিতে বাংলাদেশ সরকারের সঙ্গে কথা বলা হবে বলে জানিয়েছেন আসামের অর্থমন্ত্রী হিমান্ত বিশ্ব শর্মা। তিনি ভারতের অনলাইন সংবাদ মাধ্যম নিউজ ১৮ কে দেয়া এক সাক্ষাতকারে এ কথা জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, এ বিষয়টি নিয়ে আমরা বাংলাদেশের সঙ্গে কথা বলবো ও বলবো তাদের এসব লোককে ফিরিয়ে নিতে। যতদিন এসব মানুষকে ফেরত নেয়া না হচ্ছে, ততদিন তাদেরকে আমরা ভোটাধিকার দেবো না। এক্ষেত্রে তারা বিশেষ কিছু সুযোগ সুবিধা পাবে। হিমান্ত বিশ্বশর্মা বলেন, ভারতের বন্ধু বাংলাদেশ সরকার। তারা আমাদের সহযোগিতা করছে। এনআরসি তালিকায় নাম না থাকা মানুষদের ফেরত পাঠাতে যথাযথ আইনি প্রক্রিয়া অনুসরণ করা হবে।

তিনি বলেন, এনআরসি তালিকায় নাম নেই মানে এটা নয় যে তাদের বিদেশি আখ্যা দিয়ে বাংলাদেশে ফেরত পাঠানো হবে। তাদের ব্যাপারে যথাযথ আইনি প্রক্রিয়া অনুসরণ করা হবে। কিন্তু তত দিন পর্যন্ত ভারতের কোনো রাজনৈতিক কার্যক্রমে তাদের অংশ নিতে দেওয়া হবে না।’

উল্লেখ্য, আসামে অবৈধ অভিবাসী সনাক্তকরণের জন্য প্রণীত এনআরসির চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করা হয় শনিবার। ওই তালিকায় চূড়ান্তভাবে ঠাঁই হয়েছে ৩ কোটি ১১ লাখ মানুষের। বাদ পড়েছেন ১৯ লাখ ৬ হাজার ৬৫৭ জন মানুষ। চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশের আগের দিন শুক্রবার আসামের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সনোয়াল রাজ্যের মানুষদের শান্ত থাকার আবেদন জানান। তিনি বলেন, কেউ যেন আতঙ্কগ্রস্ত না হন। যাদের নাম তালিকায় থাকবে না, তারা ফরেনার্স ট্রাইব্যুনালে (এফটি) আবেদন জানাতে পারবেন। মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন, নাগরিকত্ব প্রমাণে সরকার তাদের সব রকমের সহায়তা দেবে।