জনসন ১৭ অক্টোবর ইইউ সামিটে যাবেন, চুক্তির জন্য, এক্সটেনশন চাইবেননাঃব্রেক্সিট ডিলে আইন জুডিশিয়াল রিভিউয়ে সুপ্রিম কোর্টে ফায়সালা

প্রকাশিত: 2:10 PM, September 8, 2019 | আপডেট: 8:43:PM, September 10, 2019
Brexit, deal or no deal concept. United Kingdom and European Union flags on dice, black background. 3d illustration

লন্ডন রিপোর্টার্স ইউনিটি । ৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ।লন্ডন । বিরোধীদের ব্রেক্সিট এক্সটেনশন ফোর্স বিলকে আইনীভাবে মোকাবেলা আর ব্রেক্সিট কার্যকরের জন্য প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের টিম নতুন ফর্মূলা নিয়ে কাজ করছে। গতরাত সারারাতব্যাপী আলোচনার পর টিম বরিস জনসন রিমেইনর, লেবার লিবডেম এসএনপি মিলে বিরোধীদের ব্রেক্সিট এক্সটেনশন আইনের বাধ্যবাধকতার লোপহোলো খুজে পেয়েছে।

Image result for brexit

প্রাইম মিনিস্টার বরিস জনসনের স্ট্র্যাটেজিক টিম এই লোপহোলো নিয়ে এখন নতুনভাবে উজ্জীবীত। প্রাইম মিনিস্টারের টিম স্পষ্টতই জানিয়েছে, বরিস জনসন আগামী ১৭ অক্টোবর ও ১৮ অক্টোবর কমিশন ও কাউন্সিলের সামিটে অংশ নিবেন। তবে তিনি সেখানে বিরোধীদলের বাধ্যবাধকতা আইন ব্রেক্সিট এক্সটেনশন তিনি কমিশনের কাছে চাইবেননা। বরং বরিস জনসন সামিটে অংশ নিবেন ব্রেক্সিট চুক্তিতে উপনীত হওয়ার জন্য। যদি তাতেও তিনি চুক্তিতে উপনীত হতে না পারেন, তাহলে তিনি তার পূর্ব নির্ধারিত ডু অর ডাই পলিসিতে ৩১ অক্টোবর ব্রেক্সিট করবেন-বিরোধীদের ব্রেক্সিট এক্সটেনশন আইন তিনি অভারটেক করবেন। প্রাইম মিনিস্টারের স্ট্র্যাটেজিক টিম মনে করে সেক্ষেত্রে এক্সট্রিম এক অবস্থার দিকে ব্রিটেন যাবে। একদিকে বিরোধীদের ব্রেক্সিট এক্সটেনশন আইন ভঙ্গের দায় জনসনের উপর লিগ্যাল চ্যালেঞ্জ, অন্যদিকে আইনের লিমিটেড টেস্ট করা হেতু সুপ্রিম কোর্ট এই প্রেক্ষিতের রিভিউ মাধ্যমে অবস্থার সুরাহার পথ খোলা থাকবে বা সুপ্রিম কোর্টে এর ফায়সালা হবে।

Dominic Raab told Sky News this morning that the government will look 'very carefully legally' at an anti-No Deal law passed by Remainer MPs

ফরেন সেক্রেটারি ডোমিনিক  র‍্যাব আজ স্কাই নিউজের সোফি রিজের সাথে সাক্ষাতকারে জানিয়েছেন, তারা অত্যন্ত সতর্কতার সাথে বিরোধীদলগুলোর পাশ করা ব্রেক্সিট এক্সটেনশন আইন পর্যালোচনা করেছেন। র‍্যাব বলেছেন এটা একটা খুবই বাজে আইন-তিনি এটাকে জনসনের মতোই আত্মসমর্পন(সারেন্ডার) আইন এবং একই সাথে আইনী ভাষায় এটাকে তার মতে দিস ল ইজ লাউজী ল বলেও মন্তব্য করেছেন। র‍্যাব বলেছেন, তারা এতে টেস্ট টু দ্য লিমিট হিসেবে এক্সারসাইজ করবেন। তার মানে জনসন আইন কমপ্লাই না করে, বরং ইগনোর করে সামিটে তিনি এক্সটেন চাইবেননা, বরং চুক্তি করতে বলবেন। যদি তাই না হয় তিনি এই আইন ইগনোর করবেন।

Sajid Javid told the Andrew Marr Show that Boris Johnson will not seek a Brexit delay when he attends an EU summit on October 17

এদিকে  চ্যান্সেলর সাজিদ জাভিদ আজ বলেছেন, সরকারের ব্রেক্সিট অবস্থান কোন পরিবর্তন হয়নি বরং প্রাইম মিনিস্টার ইইউ সামিটে ১৭-১৮ অক্টোবর যোগ দিয়ে ব্রেক্সিট চুক্তির জন্য চেস্টা করবেন, প্রাইম মিনিস্টার ব্রেক্সিট এক্সটেনশন চাইবেননা।

ব্রেক্সিট ভুমিকম্পে পার্লামেন্টারি ডেমোক্রেসিতে এখনও জনসনের হাতে ৪ তুরুপের তাস

ডাউনিনং ষ্ট্রীট মনে করে, পুরো বিষয় সুপ্রিম কোর্টে জুডিশিয়াল রিভিউয়ের মাধ্যমে ব্রেক্সিট ভাগ্য ফায়সালা হতে পারে।

 

অপরদিকে,  ফ্রান্সের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জিন ইয়াভস লি ড্রিয়ান মনে করেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে ব্রেক্সিট এক্সটেনশনের কোন সুযোগ নেই। তারমতে ইইউ তিন মাস অন্তর ব্রেক্সিট এক্সটেনশনের কোন চিন্তা করছেনা।

Image result for brexit

আর ব্রেক্সিট পার্টির নেতা নাইজেল ফারাজ বরিস জনসনকে অফার করেছেন, চুক্তি ছাড়া ব্রেক্সিট করার জন্য নির্বাচনী ঐক্য করে জনসনকে মেজরিটি এনে দিবেন।

বরিস জনসনের মাস্টারপ্ল্যানঃসাবোট্যাজ ইইউ ওউন ল`-আগাম নির্বাচনে বিরোধীদের বাধ্য করা..

সোমবার হাউজ অব কমন্সে জনসনের দ্বিতীয়বারের মতো আর্লি ইলেকশনের মোশন আসছে। টোরিরা মনে করে, এমপিরা তাতে ভোট দিবেন আগাম নির্বাচনের জন্য।