বরিশালের লাকুটিয়া সড়কে পুলিশ সাংবাদিকের নাম ভাঙ্গিয়ে চলছে বেপরোয়া চাঁদাবাজি

Prince Prince

Talukder

প্রকাশিত: 4:19 AM, September 10, 2019 | আপডেট: 7:36:AM, September 10, 2019

প্রিন্স তালুকদার, ষ্টাফ রিপোর্টারঃ বরিশাল জেলার সদর উপজেলার লাকুটিয়া সড়কে পুলিশ সাংবাদিকের নাম ভাঙিয়ে ব্যাটারী চালিত অটো যানবাহনে বেপরোয়া চাঁদাবাজির অভিযোগ পাওয়া গেছে। সদর উপজেলার বিহঙ্গল গ্রামের মোকলেছ খাঁ নামের এক ব্যক্তি নিজেকে ব্যাটারী চালিত অটো শ্রমিক সংগঠনের সভাপতি পরিচয় দিয়ে এই বেপরোয়া চাঁদাবাজি করছেন। নতুনবাজার থেকে লাকুটিয়া সড়ক এলাকায় চলাচলরত শতাধিক ব্যাটারী চালিত অটো যানবাহনগুলো থেকে প্রতিমাসে লক্ষ লক্ষ টাকা উত্তেলন করে হাতিয়ে নিচ্ছেন তিনি। খোঁজখবর নিয়ে জানা গেছে, নতুনবাজার থেকে লাকুটিয়া সড়ক এলাকায় চলাচলরত শতাধিক ব্যাটারী চালিত অটো যানবাহনগুলো থেকে প্রতিদিন মড়কখোলারপুল এলাকায় ৬০টাকা চাঁদা তুলছেন কাশিপুর কলোনী এলাকার জামাল, সাবেক রিকসা চালক কবির ও ছাত্রলীগ নেতা পরিচয়ে লাকুটিয়া সড়কের বাগান বাড়ীর রাহাত।

বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের এয়ারপোর্ট থানা, কাউনিয়া থানা, নতুনবাজার পুলিশ ফাড়ি, ট্রাফিক অফিস ও সাংবাদিকদের নাম ভাঙ্গিয়ে শ্রমিক সংঘের নামে ৫০টাকা এবং নতুন বাজার মোড়ে দাড়ানো ট্রাফিক পুলিশের নাম ভাঙ্গিয়ে ১০টাকা করে চাঁদা উত্তোলন করা হয়। কোন ব্যাটারী চালিত অটো যানবাহন মালিক বা শ্রমিকরা চাঁদার টাকা দিতে অপরাগতা প্রকাশ করলে কিংবা দেরী হলে সহ্য করতে শারীরীক নির্যাতন, অকথ্য ভাষার গালাগালি।

চাঁদা উত্তোলনকারী কাশিপুর কলোনী এলাকার জামাল, সাবেক রিকসা চালক কবির ও ছাত্রলীগ নেতা পরিচয়ে লাকুটিয়া সড়কের বাগান বাড়ীর রাহাতের বিরুদ্ধে ব্যাটারী চালিত অটো শ্রমিক সংগঠনের সভাপতি পরিচয়দানকারী মোকলেছ খাঁর নিকট কেউ অভিযোগ করলে তিনি অভিনয়ের সুরে বলে থাকেন, “তোমরা আমাকে ছেড়ে দাও, মাফ করে দাও, আমি আর এই লাইনে থাকবো না, আর চাঁদাবাজি করবো না, তোমরা চাদাঁর টাকা না দিলে আমি পুলিশ, সাংবাদিকদের কিভাবে টাকা দেব, ওরা টাকা না পেলে তো আমাকে গালাগালি করে।”

কিন্তু খোজখবর নিয়ে জানা যায়, বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের এয়ারপোর্ট থানা, কাউনিয়া থানা, নতুনবাজার পুলিশ ফাড়ি, ট্রাফিক অফিস কিংবা কোন সাংবাদিক ব্যাটারী চালিত অটো শ্রমিক সংগঠনের সভাপতি পরিচয়দানকারী মোকলেছ খাঁর নিকট কেউ কোন চাঁদা কিংবা মাসোয়ারা নেন না, বরং নাম ভাঙ্গিয়ে প্রতিমাসে লক্ষ লক্ষ টাকা উত্তেলন করে হাতিয়ে নিচ্ছেন তিনি। ইসলাম ধর্মের বেশভুষা ধারন করে মোকলেছ খাঁ আরো স্পর্শকাতর অনিয়ম করতেছেন, অনুসন্ধান চলছে। অনুসন্ধান শেষে স্পর্শকাতর অনিয়মের বর্ননা থাকছে আগামী পর্বে।