ঢাবি ছাত্রদলের কর্মীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলা, আহত ২০

প্রকাশিত: ৮:২১ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৩, ২০১৯ | আপডেট: ৮:২১:পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৩, ২০১৯

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রদলের কর্মীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলার অভিযোগ উঠেছে। সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ক্যাম্পাসের হাকিম চত্বরে এ ঘটনা ঘটে। এ হামলায় ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদকের সঙ্গে থাকা ছাত্রদলের ২০ জনের বেশি কর্মী আহত হয়েছেন। তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজে হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

ঢাবি ছাত্রদলের কর্মীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলা, আহত ২০

প্রত্যক্ষদর্শীদের সূত্রে জানা গেছে, ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদকের নেতৃত্বে ছাত্রদল নেতাকর্মীরা ক্যাম্পাসের হাকিম চত্বরে গেলে ঢাবির ছাত্রলীগের সভাপতি সন্দীপ চদ্র দাসের এর নেতৃত্বে নেতাকর্মীরা পেছন থেকে তাদের ধাওয়া করে মারধর করে। হামলার এক পর্যায়ে ছাত্রদলের কর্মীরা ক্যাম্পাস ছাড়তে বাধ্য হন। এ সময় তিনজন সাংবাদিককে মারধর করা হয়। তারা হলে বিসনেস বাংলাদেশের বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি আকতার মুন্না, স্টুডেন্ট জার্নালেন আনিসুর রহমান ও প্রতিদিনের সংবাদের রাহাতুল ইসলাম রাফি।

 

প্রসঙ্গত, দীর্ঘদিন পর রবিবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে ছাত্রলীগ এবং ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের পাল্টাপাল্টি স্লোগান দেওয়ার ঘটনা ঘটে। সেখানে উপস্থিত ছিলেন ছাত্রদলের প্রায় দুই শতাধিক নেতাকর্মী। এ সময় ছাত্রলীগের প্রায় হাজার খানেক নেতাকর্মী মধুর ক্যান্টিনে অবস্থান করছিলেন। পরে মধুর ক্যান্টিনে পাল্টাপাল্টি স্লোগান দেয় দুই ছাত্র সংগঠনের নেতাকর্মীরা। এরপর ছাত্রদলের নতুন নেতারা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ শেষে ক্যাম্পাস ত্যাগ করেন।

 

এদিকে, দুপুর একটার দিকে ঢামেকে আহতদের দেখতে যান ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল। তিনি অভিযোগ করে বলেন, আমরা প্রতিদিনের মত সকালে মধুর ক্যান্টিনে যাই। সেখান থেকে বের হয়ে টিএসসির দিকে এগোচ্ছিলাম। ঠিক তখনি ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা আমাদের পিছু নেয়। পরে তারা ‘জয় বাংলা’ শ্লোগান দিয়ে লাঠি নিয়ে অর্তকিতে হামলা চালায়। তাদের মারধরে আমাদের ১০ থেকে ১৫ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। আমরা এ হামলার নিন্দা জানাই।