পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে ‘বঙ্গবন্ধু কর্ণার’ উদ্বোধন

৭৭ মিশনকে অভিন্ন নির্দেশনা

প্রকাশিত: ৯:৪৪ অপরাহ্ণ, মার্চ ১৬, ২০২০ | আপডেট: ৬:৩৯:পূর্বাহ্ণ, মার্চ ১৭, ২০২০

ঢাকা, ১৬ মার্চ, ২০২০:বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনের অংশ হিসেবে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে ‘বঙ্গবন্ধু কর্নার’ চালু করা হয়েছে। সোমবার মধ্যাহ্নে মন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন আনুষ্ঠানিকভাবে এটি উদ্বোধন করেন। বঙ্গবন্ধু কর্নারে জাতির জনকের দুর্র্লভ ছবি ছাড়াও তার ওপর লেখা সম্বলিত বইগুলো প্রদর্শিত হবে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেন বলেন, আজকে আমরা খুবই আনন্দিত, কারণ বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনের প্রাক্কালে আমরা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে কর্নারটি চালু করতে পেরেছি। এই কর্নারে শেখ মুজিবুর রহমান সম্পর্কে যতো বই, বঙ্গবন্ধু পররাষ্ট্র বিষয়ে যতো কাজ করেছে সেগুলো, তিনি বিশ্বের যত রাষ্ট্রনায়কের সঙ্গে জীবদ্দশায় গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক করেছেন এবং তিনি যতগুলো দেশ ভ্রমণ করেছেন সেই স্মৃতিগুলো ধারণ করা হয়েছে।

মন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু আমাদের যে দিক নির্দেশনা দিয়ে গেছেন যে ‘সবার সঙ্গে বন্ধুত্ব, কারও সঙ্গে বৈরিতা নয়’ কালজয়ী সেই দর্শনের ওপর আমরা আছি।

ড. মোমেন বলেন, গত কয়েক বছর ধরে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের ‘সোনার বাংলা’ অর্জনের প্রচেষ্টায় বাংলাদেশ যে অভাবনীয় সাফল্য অর্জন করেছে, তা আমরা পৃথিবীর সব দেশে পৌঁছে দিয়ে বাংলাদেশকে অপার সম্ভাবনার দেশ হিসেবে ব্রান্ডিং করতে চাই।

বঙ্গবন্ধু কর্নারে অ্যালুমিনিয়াম কম্পোজিট প্যানেলে লেজার কাট করে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি স্থাপিত হয়েছে। বাংলায় ও ইংরেজিতে লেখা বাংলাদেশের জাতীয় সংগীত দেয়ালের দু’পাশে স্থাপিত হয়েছে। এখানে টিভি মনিটরে বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশের স্বাধীনতা বিষয়ক প্রামাণ্যচিত্র দেখানো হবে। বিদেশী কূটনীতিক ও দর্শনার্থীরা যাতে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ জানতে পারে সেজন্য এ কর্নারে বঙ্গবন্ধুর ওপর বিভিন্ন ভাষায় লিখিত বইয়ের সংগ্রহ রয়েছে। এছাড়া দর্শনার্থীদের মন্তব্যের জন্য ‘ভিজিটর’স বুক’ রাখা হয়েছে।

বিদেশে বাংলাদেশে ৭৭টি মিশনেই বঙ্গবন্ধু কর্নার চালু করার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ওই সব কর্নারে বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে যতো বই এবং ভিডিও আছে সেগুলো রাখা হবে। যাতে বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে প্রবাসীরা এবং বিদেশিরা জানতে পারে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনের অংশ হিসেবে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে ‘বঙ্গবন্ধু কর্নার’ চালু করা হয়েছে। সোমবার মধ্যাহ্নে মন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন আনুষ্ঠানিকভাবে এটি উদ্বোধন করেন। বঙ্গবন্ধু কর্নারে জাতির জনকের দুর্র্লভ ছবি ছাড়াও তার ওপর লেখা সম্বলিত বইগুলো প্রদর্শিত হবে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেন বলেন, আজকে আমরা খুবই আনন্দিত, কারণ বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনের প্রাক্কালে আমরা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে কর্নারটি চালু করতে পেরেছি। এই কর্নারে শেখ মুজিবুর রহমান সম্পর্কে যতো বই, বঙ্গবন্ধু পররাষ্ট্র বিষয়ে যতো কাজ করেছে সেগুলো, তিনি বিশ্বের যত রাষ্ট্রনায়কের সঙ্গে জীবদ্দশায় গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক করেছেন এবং তিনি যতগুলো দেশ ভ্রমণ করেছেন সেই স্মৃতিগুলো ধারণ করা হয়েছে। মন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু আমাদের যে দিক নির্দেশনা দিয়ে গেছেন যে ‘সবার সঙ্গে বন্ধুত্ব, কারও সঙ্গে বৈরিতা নয়’ কালজয়ী সেই দর্শনের ওপর আমরা আছি। বিদেশে বাংলাদেশে ৭৭টি মিশনেই বঙ্গবন্ধু কর্নার চালু করার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ওই সব কর্নারে বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে যতো বই এবং ভিডিও আছে সেগুলো রাখা হবে। যাতে বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে প্রবাসীরা এবং বিদেশিরা জানতে পারে।